গ্রুপ পর্বে ঢাকার কাছে শেষ ওভারে ২ রানের হার মাশরাফির রংপুরের জন্য ছিল বিশাল এক ধাক্কা। আজ কি সেই হারের শোধই নিলো মাশরাফিরা! গ্রুপ পর্বের ম্যাচটিতে ছিলেননা এবি ডি ভিলিয়ার্স বা হেলস কেউই। তবুও অল্পের জন্য হেরেছিল রংপুর। আর আজকের ম্যাচটি শেষ করার জন্য যেন যথেষ্ট ছিলেন এই দুইজনই।

২০০ রানের মতো পুঁজি নিয়েও রংপুরের সামনে দাঁড়াতেই পারলোনা ঢাকা। গত আসরের চ্যাম্পিয়নরা ১৮৭ রানের টার্গেট ১০ বল বাকি থাকতেই পেরিয়ে যায়। ৬ বলে ১ রান করে গেইল রাসেলের বলে আউট হলে কপালে ভাঁজ পড়ে রংপুরের সমর্থকদের। তার ঠিক পরের বলেই রাসেলের বলেই রুশো আউট হলে সে ভাঁজ আরো চওড়া হয়।

কিন্তু হাল না ছাড়া ভিলিয়ার্স হেলস কে নিয়ে তৃতীয় উইকেটে ৯৯ বলে ১৮৪ রানের রেকর্ড জুটি গড়ে ব্যবধান গড়ে দেন। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ৫০ বলে ৮ চার ও ছয় ছক্কায় অপরাজিত থাকেন ১০০ রানে। সঙ্গী হেলসও কম যান না। তিনিও ৫৩ বলে ৮ চার ও ৩ ছক্কায় অপরাজিত থাকেন ৮৫ রানে।

ঢাকার হয়ে রাসেল ৩ ওভার বল করে ৩০ রান দিয়ে ২ উইকেট লাভ করেন। তার মতো অন্যরাও ছিলেন খরুচে।

অন্যদিকে সোমবার বিপিএলের ৩৬ তম ম্যাচটিতে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডায়নামাইটস। শুরুটা অতটা ভালো হয়নি ঢাকার জন্য। দলীয় ৩৫ রানে জাজাই ও ৫১ রানে নারিনকে হারিয়ে কিছুটা বিপদেই পড়ে তারা। রনি তালুকদার ও সাকিবের পার্টনারশিপে ম্যাচে ফেরে ঢাকা। ১১.২ ওভারে দলীয় ১০৫ রানের মাথায় ফরহাদ রেজার বলে আউট হওয়ার আগে সাকিব ৪ বাউন্ডারিতে ১২ বলে ২৫ রান করে। নতুন ব্যাটসম্যান রাসেল টিকতে পারেনি বেশিক্ষন। দলীয় ১৩০ রানে ৮ বল খেলে ১৪ রান করে আউট হন তিনি।

রনি ৩২ বলে ৫২ রান করে আউট হওয়ার আগে ৬ টি চার ও একটি ছক্কা মারেন। রনি তালুকদারের পর পোলার্ড ২৩ বলে ৩৭ রান করেন।

রংপুরের হয়ে ফরহাদ রেজা ২ টি উইকেট লাভ করেন। মাশরাফি, নাজমুল, শরিফুল, শহিদুল ১ টি করে উইকেট নেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ঢাকা ডায়নামাইটস: ২০ ওভারে ১৮৬/৬ (জাজাই ১৭, নারাইন ২৮, রনি ৫২, সাকিব ২৫, রাসেল ১৪, পোলার্ড ৩৭, শুভাগত ১, সোহান ৩; নাহিদুল ৩-০-২২-০, মাশরাফি ৪-০-৩০-১, রেজা ৩-০-৩২-২, নাজমুল ৩-০-৩৫-১, শফিউল ৪-০-৩৫-১, শহিদুল ৩-০-২৬-১)

রংপুর রাইডার্স: ১৮.২ ওভারে ১৮৯/২ (গেইল ১, হেলস ৮৫, রুশো ০, ডি ভিলিয়ার্স ১০০; শাহাদাত ২-০-১৬-০, রাসেল ৩-০-৩০-২, সাকিব ৪-০-৪১-০, নারাইন ৪-০-৪৫-০, রুবেল ৪-০-৪২-০, অনিক ১.২-০-১৪-০)

ফল: রংপুর রাইডার্স ৮ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দা ম্যাচ: এবি ডি ভিলিয়ার্স

মন্তব্য: