আগামীকাল শনিবার (২৩ মার্চ) থেকে শুরু হবে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ১২তম আসর। বিশ্বের অন্যতম সেরা ফ্রাঞ্জাইজি ভিক্তিক টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের একমাত্র প্রতিনিধি হিসেবে খেলবেন সাকিব আল হাসান। গত তিন আসরে মুস্তাফিজুর রহমান খেললেও এবার তাঁর উপর রয়েছে বিসিবির নিষেধাজ্ঞা। এছাড়া আইপিএলের আরো কিছু খবর থাকছে আমাদের আজকের বিকেলের আয়োজনে….

শঙ্কা কাটিয়ে খেলবেন সাকিব: বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ফাইনালে ইনজুরিতে পড়েন সাকিব আল হাসান। ফলে মিস করেন নিউজিল্যান্ড সফর। শঙ্কা জেগেছিলো আইপিএলে খেলা নিয়েও। তবে ইনজুরি কাটিয়ে শেষ মুহূর্তে ফিট হওয়ায় আইপিএল খেলার ছাড়পত্র পেয়ে যান সাকিব আল হাসান। বৃহস্পতিবার আইপিএলের প্রথম ম্যাচকে সামনে রেখে উড়ে গেছেন কলকাতা। রবিবার আসরের দ্বিতীয় দিন তাদের প্রতিপক্ষ কলকাতা নাইটরাইডার্স।বিশ্বকাপকে সামনে রেখে ম্যাচ প্রাকটিসের জন্য আইপিএলকে প্রস্তুতির মঞ্চ হিসেবে বেছে নিয়েছেন তিনি।

নেই মুস্তাফিজ: আইপিএলের এবারের আসরে খেলা হচ্ছে না মুস্তাফিজুর রহমানের। ঘন ঘন ইনজুরির কারণে বিদেশে লিগগুলোতে কাটার মাস্টারের খেলার উপর দু’বছরের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে বিসিবি। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের স্কোয়াডে থাকলেও খেলা সম্ভব ছিলো না মুস্তাফিজের পক্ষে। তাই বাঁহাতি এই পেসারের খেলার সুযোগ না থাকায় ভাগ্য খুলেছে যুবরাজ সিংয়ের। নিলামে অবিক্রিত ছিলেন বাঁহাতি এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান। পরে মুস্তাফিজের বদলে যুবরাজকে ১ কোটি রুপিতে দলে নিয়েছে মুম্বাই।

বোলার সংকটে কলকাতা: ১২তম আসর শুরুর আগেই ইনজুরিতে পড়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্সের তিন পেসার শিভাম মাভি, কামলেশ নাগারকোটি এবং দক্ষিণ আফ্রিকার এনরিচ নর্টজে। ফলে বোলার সংকটে পড়েছে দু’বারের চ্যাম্পিয়নরা। যদিও এরই মধ্যে দুই ভারতীয় পেসার শিভাম মাভি এবং কামলেশ নাগারকোটির বদলি ক্রিকেটারের নাম ঘোষণা করেছে দলটি। কিন্তু এখনও এনরিচ নর্টজের বদলি হিসেবে পাওয়া যায়নি কলকাতা।

ধাক্কা খেলো চ্যাম্পিয়নরা: নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফিরে গত বছর শিরোপা জেতে চেন্নাই সুপার কিংস। কিন্তু এবার আসর শুরুর আগে বড় একটা ধাক্কা খেলো দলটি। সাইড স্ট্রেন ইনজুরির কারণে পুরো টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ফাস্ট বোলার লুঙ্গি এনগিদি। আইপিএলের গত আসরের নিলাম থেকে এনগিদিকে দলে নিয়েছিলো চেন্নাই। সেবার ধোনির দলকে তৃতীয় শিরোপা জেতানোর পেছনে বড় ভূমিকা রেখেছিলেন এনগিদি। ৭ ম্যাচে ৬ ইকোনমি রেটে শিকার করেছিলেন ১১ উইকেট।

ম্যাচ সম্প্রচার করবে ২৬টি চ্যানেল: আইপিএলের সম্প্রচার স্বত্ব কিনে নিয়েছে স্টার ইন্ডিয়া। মোট ২৬টি চ্যানেলে দেখা যাবে ম্যাচ। ইংলিশ ও হিন্দি ছাড়াও আরো পাঁচটি ভাষায় ধারাভাষ্য শোনা যাবে। এমনকি ভারতীয় দর্শকরা অনলাইনেও দেখতে পারবেন সবগুলো ম্যাচ। আর বাংলাদেশসহ বিশ্বের আরো অনেক দেশ আইপিএল দেখতে পারবেন স্যাটেলাইট চ্যানেলের মাধ্যমে।

সবার আগে রায়না: আইপিএলের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় সবার উপরে আছেন সুরেশ রায়না। ১৭৬টি ম্যাচে ৩৪.৩৭ গড়ে ৪ হাজার ৯৮৫ রান করেছেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। ১টি শতক এবং ৩৫টি অর্ধশতক রয়েছে তাঁর নামের পাশে। সর্বোচ্চ রানের এই তালিকায় দ্বিতীয়স্থানে আছেন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর অধিনায়ক বিরাট কোহলি। আইপিএলে ১৬৩টি ম্যাচ খেলে ৩৮.৩৫ গড়ে ৪ হাজার ৯৪৮ রান সংগ্রহ করেছেন ভারতীয় অধিনায়ক। তিন নম্বরে আছেন হিটম্যান নামে খ্যাত রোহিত শর্মা। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের দলপতি ১৭৩টি ম্যাচে করেছেন ৪ হাজার ৪৯৩ রান।

মন্তব্য: