চোটের কারণে বেশ কিছুদিন ধরেই মাঠের বাইরে সাকিব আল হাসান। এদিকে দরজায় কড়া নাড়ছে বিশ্বকাপ। চলতি মাসেই আবার ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) খেলা শুরু হচ্ছে। এতদিন সাকিবের চোট নিয়ে সবাই ভাবছিল যে, সাকিব কি আসলে আইপিএলে খেলতে পারবে কিনা? বা আইপিএল খেললেও বিশ্বকাপে কোনোরকম সমস্যার সম্মুখীন হবে কিনা?

কিন্তু সাকিব তার শারীরিক ফিট নিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছে আবেদন করেছেন ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) খেলার অনুমতির জন্য। এই আবেদনে সাড়াও দিয়েছে বিসিবি।

গত কয়েকদিন আগে বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল বিসিবি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আইপিএলে অংশগ্রহণে সাকিবকে বাধা দেয়ার কোনো কারণ আছে বলে আমি মনে করিনা। যখন একজন খেলোয়াড় সম্পূর্ণ সুস্থ থাকবে, তখন সে যে কোনো খেলাতেই অংশ নিতে পারবে। তবে তাকে অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে যেন ইনজুরির কবলে না পড়েন। আমরা ইতোমধ্যে তাকে আইপিএলে খেলার ছাড়পত্র দিয়ে দিয়েছি।’

কিন্তু আজ ২০ মার্চ বুধবার বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান জানান, সাকিবকে অনুমতি দেয়া হয়েছে আইপিএল খেলতে। সে শুরুর আগেই যোগ দিতে পারবে সানরাইজার্স হায়দরাবাদে।

এদিকে বিসিবির মেডিকেল বিভাগ থেকেও পেয়েছেন সুস্থতার সনদ। তার মানে আইপিএলে যেতে আর কোনও বাধা নেই দেশসেরা এই অল-রাউন্ডারের। আজ সাকিব পুরো দমে অনুশীলন করেছেন মিরপুরের মাঠে। ব্যাটে-বলে কতটা প্রস্তুত তিনি সেটার জানান দিলেন শের ই বাংলা স্টেডিয়ামের উইকেটে ধুমধাড়াক্কা ব্যাটিং দিয়ে।

এদিকে সাকিবকে নিয়ে আকরাম খান জানান, এরই মধ্যে সাকিবকে অনাপত্তি দেয়া আছে বোর্ড থেকে। তবে সাকিবকে বলা হয়েছে সাবধানে থাকতে। যেহেতু সামনে বিশ্বকাপ, তাই তার খেয়াল রাখা জরুরি। যদিও সে এসব ভালো বুঝে।

এদিকে আগামী ২৩ মার্চ থেকে শুরু হবে আইপিএল। ২৪ মার্চ ইডেন গার্ডেনে কলকাতা নাইট রাইডার্সের মুখোমুখি হবে সাকিবের সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।

মন্তব্য: