BD Sports News,ক্রিকেট, ভারত,কোহলি

সিরিজ হারের সমালোচনায় পুড়ছেন কোহলি

ইংল্যান্ডের মাটিতে ৪-১ ব্যবধানে সিরিজ হেরেছে ভারত। ওভাল টেস্টে হারের পর সংবাদ সম্মেলনে ‘যদি-কিন্তু’ মেলানোর চেষ্টা করেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। সেই ‘যদি-কিন্তু’ নিয়েই টুইট করেছেন হার্শা ভোগলে।

পাঁচ টেস্ট সিরিজের ফল (৪-১) বলছে নিঃশর্ত আত্মসমর্পণ। কিন্তু বিরাট কোহলি তা মানতে নারাজ। তাঁর যুক্তি, দুই দলই জয়ের জন্য খেললে এমন ফল হতেই পারে। ওভালে হারের পর ভারতীয় অধিনায়ক অবশ্য আক্ষেপ করেছেন, যদি সুযোগগুলো কাজে লাগাতে পারতাম তাহলে ফল অন্যরকম হতে পারত। ইংল্যান্ড শ্রেয়তর দল হিসেবে জিতেছে তা মেনে নিয়েই কোহলির আত্মপ্রসাদ, টেস্ট ক্রিকেট আমরা যেভাবে খেলেছি সেখান থেকেও শেখার আছে।

এদিকে কোহলির এই ‘যদি-কিন্তু’তে-ই হার্শা ভোগলের আপত্তি। ভারতের খ্যাতনামা এই ধারাভাষ্যকারের সাফ কথা, যদি-কিন্তুর সমীকরণ মিলিয়ে ক্রিকেট হয় না। শুধু ভোগলে নন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শাস্ত্রী-কোহলির দলের পারফরম্যান্স নিয়ে ক্ষোভ উগরে দেওয়ার সঙ্গে সরস মন্তব্যও চলছে। স্বয়ং ইন্ডিয়ান ক্রিকেটপ্রেমীরাই এসবে মেতে উঠেছে। অনেকে শাস্ত্রীর পদত্যাগও চেয়েছেন। কারণ ভারতের এই হেড কোচের ‘হাস্যকর’ মন্তব্য।

ওভালে বসেই শাস্ত্রী বলেছিলেন, ভারতের এই দলটা বিদেশে তিন বছরে নয়টি টেস্ট ও তিনটি সিরিজ জিতেছে, যা আগে কেউ জেতেনি। কিন্তু এসব শুধুই শ্রীলঙ্কা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে। এ বছর দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ডের মাটিতে সিরিজ হেরেছে শাস্ত্রী-কোহলির ভারত। বাকি আছে অস্ট্রেলিয়া। আসছে নভেম্বরে সেই পরীক্ষা। শুধু শ্রীলঙ্কা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে সিরিজ জিতে বড়াই করায় ভারতের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলি শাস্ত্রীর কথাকে বলেছেন ‘অপরিণত মন্তব্য।’

শাস্ত্রীর মতো কোহলিও কিন্তু সমালোচনা থেকে রেহাই পাচ্ছেন না। এ কথা সত্য, ওভালে লড়াই করেই হেরেছে ভারত। জয়ের জন্য ৪৬৪ রান তাড়া করতে নেমে ১২১ রানে ৫ উইকেট হারিয়েছিল ভারত। লোকেশ রাহুল-ঋষভ পন্তের দুর্দান্ত জুটিতে ভর করে ভারত পরবর্তী উইকেট হারিয়েছে ৩২৫ রানে। এরপর ২০ রান তুলতেই বাকি ৪ উইকেট হারিয়েছে ভারত। এই লড়াই থেকেই আত্মপ্রসাদ নিচ্ছেন ভারতের অধিনায়ক কোহলি, ‘এটা করার জন্য কলিজা লাগে। আমরা যদি কিছু সুযোগ কাজে লাগাতে পারতাম, কিন্তু আমরা তা করতে পারিনি। তারা আমাদের চেয়ে ভালো খেলেছে কিন্তু আমরা যেভাবে টেস্ট খেলেছি সেখান থেকেও শেখার আছে।’

কোহলির এমন মন্তব্যের প্রেক্ষিতেই সম্ভবত টুইটারে মুখ খুলেছেন ভোগলে। তাঁর টুইট, ‘খেলাধুলায় “যদি-কিন্তু” বলে কিছু নেই। ভারত সুযোগ পেয়েছে, তবে স্কোরলাইন বলছে ৪-১; অর্থাৎ ভারতের যতটা ভালো খেলার কথা ছিল তত ভালো খেলেনি। বিদেশের মাটিতে এ নিয়ে টানা দুটি হতাশা।

মন্তব্য: