২৫ মার্চ দ্বাদশ আইপিএলে রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে কিংস ইলেভেন পঞ্জাব অধিনায়ক রবিচন্দ্রন অশ্বিনের করা মানকাড রান আউট বিতর্কের জের দিন দিন খারাপ দিকে যাচ্ছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে অশ্বিনের তীব্র সমালোচনা। শেন ওয়ার্ন, কেভিন পিটারসনের মত প্রাক্তন কিংবদন্তি ক্রিকেটাররা অশ্বিনের ক্রিকেটিং স্পিরিট নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

তবে সাবেক ক্রিকেটারদের চেয়ে ভারতীয় ক্রিকেট ভক্তরাই এবার অশ্বিনকে আরো এক হাত নিলেন। শুধু অশ্বিনকে আক্রমণ করেই নেটিজেনরা শান্ত থাকলেন না। তাদের রোষের আঁচ গিয়ে পড়ল রবিচন্দ্রন অশ্বিনের স্ত্রী পৃথী অশ্বিন এবং ছোট্ট কন্যাসন্তানের উপর।

অশ্বিনকে তো বটেই তার আচরণের জন্য কটাক্ষের শিকার হতে হচ্ছে পরিবারকেও। ইনস্টাগ্রামে অশ্বিনের স্ত্রী পৃথীকেও সমর্থকদের রোষের মুখে পড়তে হয়। তার ছবির নিচে অনেকেই কমেন্ট করেছেন, ‘আপনার স্বামী বিশ্বাসঘাতক।’ অন্য একজন লিখেছেন, যেভাবে অশ্বিন মানকাডিং করলেন, তারপর থেকে তাঁর প্রতি আর কোনও সম্মান রইল না। তবে শুধু পৃথীই নয়, অশ্বিনের দ্বিতীয় সন্তান আধ্যার ছবিতেও অশ্বিনকে তুলোধুনো করা হয়েছে। ক্ষুব্ধ নেটিজেনরা আধ্যার উদ্দেশে লিখেছেন, ‘তোমার বাবা বিশ্বাসঘাতক। তুমিও বড় হয়ে বাবার মতো হবে।’

তবে নিজের আচরণে একেবারেই অনুতপ্ত নন অশ্বিন। সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘আমি অনুতপ্ত কেন হতে যাব? ব্যাটিং ক্রিজের দিকটা যদি ব্যাটসম্যানের হয়, বোলিং ক্রিজের দিকটা আমার। সেখানে কাউকে আইনবিরোধী সুযোগ নিতে দেন না। আর ক্রিকেটের স্পিরিটের প্রশ্ন উঠছে কোথা থেকে তাও তো জানি না। যা করেছি। আইন মেনে করেছি। আইন যদি প্লেয়ার ব্যবহারই না করতে পারে, তাহলে সেটা তুলে দেওয়াই ভাল।’

মন্তব্য: