অবশেষে জয়ে ফিরল কলকাতা নাইট রাইডার্স। ঘরের মাঠে মুম্বাইকে হারিয়ে শেষ চারে যাওয়ার আশা এখনও জিইয়ে রাখল তাঁরা। একই সঙ্গে মুম্বাইয়ের বিরুদ্ধে জিতে প্রেস্টিজ ফাইটে শাহরুখকেও কিছুটা স্বস্তি দিলেন দীনেশ কার্তিকরা। ঘরের মাঠে ৩৪ রানে জিতল কেকেআর। মুম্বাই ম্যাচ জিতে কেকেআর জমিয়ে দিল প্লে-অফের হিসেব

এদিন টসে জিতে প্রথম বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয় মুম্বাই। ব্যাট করতে নেমে প্রথম থেকেই মারমুখী মেজাজে ছিলেন শুভমান গিল (৭৬) ও ক্রিস লিন (৫৪)। ক্রিস লিন ফিরতেই নাইট শিবির ব্যাট করতে পাঠায় ফর্মে থাকা রাসেলকে। তিনে ব্যাট করার সুযোগ পেয়ে তা কাজেও লাগান। ৪০ বলে ৮০ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। ইডেনে এদিনের ইনিংসে ৬টি চার ও ৮টি ছক্কা হাঁকিয়েছেন রাসেল। ১৫ রান করে অপরাজিত থাকেন দীনেশ কার্তিক। যার সুবাদে কলকাতা মুম্বাইয়ের সামনে ২৩২ রানের পাহাড় খাড়া করে।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে মুম্বাইয়ের শুরুটা একদমই ভাল হয়নি। বড় রানের লক্ষ্যে কোনও রান না করেই ফিরে যান ওপেনার কুইন্টন ডে কক। মাত্র ১২ করতে পারেন অধিনায়ক রোহিত শর্মা। তিন নম্বরে নামা এভিন লুইসের সংযোজন ১৫ রান। কিছুটা হাল ধরার চেষ্টা করেন সূর্যকুমার যাদব ও কিরন পোলার্ড। কিন্তু দু’জনেই ২৬ ও ২০ রান করে আউট হয়ে যান।

এই ভরাডুবির মধ্যেই ১৭ বলে হাফ সেঞ্চুরি করেন হার্দিক পাণ্ড্যে। ১৮ ওভারের সময় তিনি যখন থামেন তখন তাঁর নামের পাশে লেখা হয়ে গিয়েছে ৩৪ বলে ৯১ রান (বাউন্ডারি ৬, ওভার বাউন্ডারি ৯)। ক্রুনাল পাণ্ড্য আউট হলেন ২৪ রানে। কলকাতার হয়ে দুটো করে উইকেট নেন সুনীল নারিন, আন্দ্রে রাসেল ও হ্যারি গার্নে। ৩৪ রানে ম্যাচ জিতে আবার নতুন করে স্বপ্ন দেখতে শুরু করে দিল কলকাতা।ম্যাচের সেরা নির্বাচিত হয়েছেন ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার রাসেলই।

মন্তব্য: