১০ দলের অংশগ্রহণে হবে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ। ইতিমধ্যে প্রতিটি দল চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণা করায় ১০ অধিনায়ক পেয়ে গেছে ২০১৯ আসর। এদের মধ্যে বাংলাদেশের মাশরাফি বিন মুর্তজাকে সেরা অধিনায়ক হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন পাকিস্তানের সাবেক স্পিডস্টার শোয়েব আখতার।

২০১৫ সালে দ্বিতীয় মেয়াদে বাংলাদেশ দলের অধিনায়কত্ব পাওয়ার পর ক্রিকেট বিশ্বে টাইগারদের অন্যরকম ভাবে তুলে ধরেছেন নড়াইল এক্সপ্রেস। তাঁর হাত ধরেই ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনাল, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনাল এবং গেল বছরের এশিয়া কাপের ফাইনালে খেলেছিল বাংলাদেশ। তাই সব মিলিয়ে কোহলি-মরগানদের থেকে মাশরাফিকে এক ধাপ উপরে রেখেছেন শোয়েব।

সম্প্রতি পিটিভি স্পোর্টসে শোয়েব বলেন, ‘আমার মতে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের সেরা অধিনায়ক মাশরাফি। তবে তাঁদেরকে বেশী উচ্চাভিলাষী হওয়া যাবে না। তাহলেই তাঁরা বিশ্বকাপে ভালো করবে।’

পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক রশিদ লতিফও প্রশংসায় ভাসিয়েছেন মাশরাফিকে। ইনজুরির সঙ্গে লড়াই করার পাশাপাশি দলকে একত্রে নিয়ে চলছেন বাংলাদেশের সর্বকালের সেরা এই অধিনায়ক, মনে করছেন তিনি!

মাশরাফির হাত ধরে ২০১৪ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত দারুণ ক্রিকেট খেলেছে বাংলাদেশ বলে উল্লেখ করেছেন সাবেক উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান লতিফ। তিনি বলেছেন, ‘পায়ে বড় ধরণের ইনজুরি থাকা সত্ত্বেও মাশরাফি দলকে ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে নিয়ে চলছে। ইনজুরি থাকা সত্ত্বেও যখন দলকে নিয়ে এভাবে এগিয়ে চলা বেশ কঠিন। সে পুরো দলকে ঐক্যবদ্ধ করে রেখেছে।বাংলাদেশে তাঁর অনেক সুনাম রয়েছে।

‘২০১৪, ২০১৫, ২০১৬ সালে দারুণ ক্রিকেট খেলেছে বাংলাদেশ। তারা ঘরের মাঠে ভারত, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং নিউজিল্যান্ডকে হারিয়েছে ওয়ানডেতে। ২০১৫ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে বিদায় করে দিয়েছিল তারা!
বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা অনেক সুন্দর স্ট্রাইক রোটেট করে খেলতে পারে যেটি তাদের জন্য একটি প্লাস পয়েন্ট।’

মাশরাফির নেতৃত্বে ২০১৫ বিশ্বকাপের সাফল্যের পর ২০১৯ বিশ্বকাপে বড় কিছু করে দেখাতে মরিয়া টাইগাররা।সেই লক্ষ্যেই জুন মাসের ২ তারিখ দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করবে মাশরাফি বিন মর্তুজার দল!

উল্লেখ্য, শোয়েব আখতার লতিফের আগে রমিজ রাজাও প্রশংসায় ভাসিয়েছেন টাইগারদের এবং তারা সবাই বিশ্বাস করেন এই বিশ্বকাপে দারুণ কিছু করে দেখাবে টাইগাররা!

মন্তব্য: