অনাকাঙ্খিত ভাবে প্রায় দীর্ঘ ১৬ মাস পর টেস্ট দলে সুযোগ পেয়ে ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস খেলা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ হঠাৎই অবসরের সিদ্ধান্ত নেন । তবে এখন পর্যন্ত একবারো নিজ থেকে অবসরের ঘোষণা দেননি তিনি। মাহমুদউল্লাহ জানালেন, এ বিষয়ে ‘শীঘ্রই’ তার আনুষ্ঠানিক বার্তা আসবে।

দেড়শ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে হারারেতে ‘বিদায়ী’ টেস্টে ম্যাচসেরা হন রিয়াদ। কিন্তু পুরস্কার বিতরণীর মঞ্চে এ তার অবসর নিয়ে কোনো প্রশ্নও করা হয়নি। টেস্টের শেষ দিন সতীর্থদের ‘গার্ড অব অনার’ পাওয়া রিয়াদ ম্যাচ শেষে বাংলাদেশী ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত বিদায় বার্তা পেলেও তার নিজের কোনো বার্তা নেই অবসরের ব্যাপারে। এখনও আছেন নীরব ভূমিকায়।

সোমবার (২ আগস্ট) অবসর-কাণ্ডের পর প্রথমবার কোনো ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে আসেন রিয়াদ। এ সময় সাংবাদিকদের ছুঁড়ে দেওয়া প্রশ্নের উত্তরে রিয়াদ জানান, আপাতত অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ নিয়েই শুধু ভাবতে চাইছেন তিনি। তবে টেস্টের ব্যাপারে কিছু দিন পর মুখ খুলবেন বলে সংবাদ সম্মেলনে আশ্বাস দেন তিনি।

ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বলেন, ‘একটা জিনিস পরিস্কার করে বলতে চাই এখন শুধু এই সিরিজ নিয়েই আমি কনসার্ন। এ বিষয়ে অতি শীঘ্রই আপনাদের জানাতে পারব ইনশাআল্লাহ্‌।’

নিজে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা না দিলেও ক্রিকেটের সব মহলে হারারে টেস্টকেই রিয়াদের ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট হিসেবে গণ্য করা হচ্ছে। যদিও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) মাহমুদউল্লাহর এই অবসরের সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের আহ্বান জানিয়েছিল।