আইপিএলে জয় অব্যাহত দিল্লি ক্যাপিটালসের। রবিবার অ্যাওয়ে ম্যাচে তারা হারাল লিগের অন্যতম শক্তিশালী দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে। দিল্লির করা ১৫৫ রান তাড়া করতে নেমে ৩৯ রানে ম্যাচ হারল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। অলআউট হয়ে গেল মাত্র ১১৬ রানে। একই সাথে ঘরের মাঠে এটি হায়দরাবাদের ১০০তম ম্যাচ ছিল। কিন্তু সেই মাইলস্টোন ম্যাচ জয় দিয়ে স্মরণীয় করে রাখতে পারল না তারা।

এদিন টসে জিতে দিল্লিকে প্রথমে ব্যাট করতে পাঠায় হায়দরাবাদ। শুরু থেকেই সানরাইজার্স হায়দরাবাদের নিয়ন্ত্রীত বোলিংয়ে পরপর ফিরে যান পৃথ্বী শ (৪) ও শিখর ধাওয়ান (৭)। তৃতীয় উইকেটে কলিন মুনরো (২৪ বলে ৪০ রান) ও শ্রেয়স আইয়ার (৪০ বলে ৪৫ রান) ইনিংস টানেন। দুজনে আউট হওয়ার পর শেষদিকে ঋষভ পান্থ (১৯ বলে ২৫ রান) ও ক্রিস মোরিস (৪ রান) ইনিংস এগিয়ে নিয়ে যেতে ব্যর্থ হন। শেষদিকে অক্ষর প্যাটেল ১১ বলে ১৪ রান করায় কোন মতে দেড়শো রানের গণ্ডী টপকে যায় দিল্লি ক্যাপিটালস। শেষ অবধি ৭ উইকেটে ১৫৫ রান তোলে দিল্লি।

জবাব দিতে নেমে ডেভিড ওয়ার্নার ও জনি বেয়াস্টোর ওপেনিং জুটি ৯.৫ ওভারে ৭২ রান যোগ করে৷ শেষে বোয়ারস্টো ৩১ বলে ৪১ রান করে কিমো পলের শিকার হন৷ কিমো কেন উইলিয়ামসন (৩) ও রিকি ভুইকেও (৭) ফিরিয়ে দেন৷

ব্যক্তিগত হাফসেঞ্চুরি পূর্ণ করার পর ওয়ার্নার রাবাদার প্রথম শিকার হন৷ সাজঘরে ফেরার আগে অজি তারকা ৩টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে ৪৭ বলে ৫১ রান করেন৷ পরে রাবাদা আউট করেন বিজয় শঙ্কর (১), ভুবনেশ্বর কুমার (২) ও খলিল আহমেদরকে (০)৷ মরিস একই ওভারে তুলে নেন দীপক হুডাকে (৩), অভিষেক শর্মা (২) ও রশিদ খানের (০) উইকেট৷শেষ ১৫ বলে সানরাইজার্স সাতটি উইকেট হারিয়ে দিল্লির কাছে আত্মসমর্পণ করেন৷ ১৮.৫ ওভারে অলআউট করে দেয় ১১৬ রানে৷

দিল্লির হয়ে কাগিসো রাবাদা ২২ রানে ৪ উইকেট, ক্রিস মোরিস ২২ রানে ৩ উইকেট ও কিমো পল ১৭ রানে ৩ উইকেট নেন। এই নিয়ে পরপর তিনটে ম্যাচ জিতে আট ম্যাচে দশ পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে চলে গেল। দুই থেকে তৃতীয় স্থানে নেমে গেল কলকাতা নাইট রাইডার্স।

মন্তব্য: