ফুটবল মাঠে কত ঘটনায় তো ঘটে। ফুটবলার ফুটবলার মারপিট থেকে শুরু করে ফুটবলার রেফারী মারপিট। এমনকি রেফারীর ফুটবলার খুনা খুনির ঘটনাও ঘটেছে ফুটবলে। আর সমর্থকদের তান্ডবে ম্যাচ পন্ড হওয়া তো সাধারণ ঘটনা।

তবে আজকের ঘটনা মনে হয় ফুটবল ইতিহাসে আগে কখনো ঘটেনি। নিজের বিদায়ী ম্যাচ স্মরণীয় করে রাখা প্রতিটি ফুটবলারের জন্যই সর্বোচ্চ চাওয়া। তাই প্রত্যেক স্ট্রাইকারই চেষ্টা করেন যদি একটি গোল অথবা হ্যাটট্রিক করে নিজেকে স্মরণীয় করে রাখতে, ডিফেন্ডার চেষ্টা করেন সর্বোচ্চ ভালো ডিফেন্স করে আর গোলকীপাররা চান ভালো কিছু সেভ করে দলকে জিতিয়ে সবার মনে শেষ ম্যাচটিকে মনে করিয়ে রাখতে। কিন্তু নিজের বিদায়ী ম্যাচে অপহরণ হয়ে যাওয়া মনে হয় কোনো ফুটবলারের শেষ চাওয়া হতে পারে না। তেমন ঘটনায় ঘটেছে ফুটবলার ইগনাজিও বারবাগালো ভাগ্যে। বিদায়ী ম্যাচে সংশ্লিষ্ট ফুটবলারের অপহরণ তাও আবার মাঠ থেকেই এমন ঘটনা মনে হয় ফুটবল ইতিহাসে এই প্রথমবার ঘটল।

ইতালির তৃতীয় ডিভিশনের চ্যাম্পিয়নশিপ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল ভায়াগ্রানাদ ও নেব্রোদি। আর সেই ম্যাচ থেকেই ভায়াগ্রানাদের ফুটবলার ইগনাজিও বারবাগালোকে অপহরণ করা হয় মাঠ থেকেই। তার বিদায়ী ম্যাচে ফুটবলারদের মাঠে নামার আগে হঠাত্ই মাঠে একটি হেলিকপ্টার নেমে আসে। হেলিকপ্টার থেকে দু’জন মুখোশধারী নেমে এসে ১৮ নম্বর জার্সিধারী ইগনাজিওকে সাথে নিয়ে খুবই অল্প সময়ের মাঝেই হলিউড সিনেমার স্টাইলে পালিয়ে যায় কপ্টারে করে।

তবে, পরে জানা যায় পুরো ঘটনাটিই সাজানো ছিলো।পঞ্চান্ন বছর বয়সী এই ফুটবলার ইগনাজিও বারবাগালোকে বিশেষ সম্মান দিতে এবং জনপ্রিয় এই ফুটবলারের বিদায়ী ম্যাচ স্মরণীয় করে রাখতেই ঘটানো হয়েছে এমন কান্ড।

মন্তব্য: