রাজশাহীর বিপক্ষে টসে হেরে ব্যাট করেতে নেমে বড় রানের স্কোর পেলো সিলেট সিক্সার্স। নির্ধারীত ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে সিলেট ১৮০ রান তুলেছে।

টসে হেরে সিলেটের ব্যাটিংয়ের শুরুটা ভালোই করেন লিটন দাস। তবে অন্য ওপেনার সাব্বির রহমান এদিন দলীয় ২০ রানের মাথায় ব্যাট হাতে ব্যর্থ হন। মাত্র ১ রানে সানির বলে আউট হন তিনি। এরপর শুরুতে ব্যাট হাতে ঝড় তোলা লিটনও বেশি সময় ক্রিজে স্থায়ী হতে পারেননি। দলীয় ৮ রানের ব্যবধানে ১৩ বল থেকে ২৪ রান করে মুস্তাফিজের শিকারে পরিণত হন তিনি।

তৃতীয় উইকেটে জেসন রয় ও আফিফ হোসেনের ব্যাটে প্রাথামিক বিপর্যয় সামলে ওঠে সিলেট। এই জুটিতে তারা ৬২ রান তোলে। দলীয় ৯০ রানের মাথায় সিলেটকে তৃতীয় ধাক্কা দেন প্রসন্না। তিনি ২৮ বল থেকে ৪২ রান করা রয়কে সাজঘরে ফেরান।

চতুর্থ উইকেটে পুরান ও আফিফ জুটি গড়েন। এই জুটিতে ২৯ রান তোলার পর ১৯ রান নিয়ে প্যাভিলনের পথ ধরেন ‍পুরান। ইনিংসের ১৬তম ওভারের শেষ বলে ২৯ বল থেকে ২৮ রান করে ফেরেন আফিফ।

পঞ্চম উইকেটে কাপালি ও খুলনার হয়ে ব্যাট হাতে ঝড় তোলা নেওয়াজ ইনিংস মেরামতের চেষ্টা করেন। তবে নেওয়াজ মাত্র ৭ বল থেকে ১১ রান করে বিদায় নেন। তবে ষষ্ঠ উইকেটে শেষ ১৪ বলে কাপালি ও সোলেহ তানভির দলকে বড় রানের ভীত গড়ে দেন। তাদের অপরাজিত ৪১ রাজের জুটিতে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৮০ রান তোলে সিলেট।

যেখানে ব্যাট হাতে ১০ বল থেকে ২৩ রান করে সোহেল তানভীর এবং ১৪ বল থেকে ১৬ রান করে অপরাজিত থাকেন কাপালি।

সিলেটের হয়ে বল হাতে ৪৩ রান খরচায় ২টি উইকেট নেন মুস্তাফিজ। প্রসন্না, ডাসকাট, রাব্বি ও সানি প্রত্যোকে ১টি করে উইকেট নেন।

মন্তব্য: