বৃহস্পতিবার স্বাগতিক মুম্বাইয়ের বিপক্ষে আম্পায়েরর ভুলে পরাজয়ের স্বাদ পেয়েছে কোহলির দল রয়েল চ্যালেঞ্জার বেঙ্গালুরু। এই ম্যাচে ব্যাট হাতে ৪৬ রানের ইনিংস খেলেছেন বিরাট কোহলি। এতেই আইপিএল ইতিহাসে সুরেশ রায়নার পর দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে আইপিএলে ৫০০০ রানের মাইলফলক পূর্ণ করলেন তিনি।

আইপিএল ২০১৯-এর উদ্বোধনী দিনে বেঙ্গালুরুর বিরুদ্ধেই আইপিএল টুর্নামেন্টের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে ৫০০০ রান পূর্ণ করেছিলেন সুরেশ রায়না। রায়নার ৫,০০০ রান পূর্ণ করতে লেগেছে ১৭৭টি ইনিংস। বিরাট কোহলি ১৬৫টি ম্যাচ খেলেই ৫০০০ ছুঁয়ে ফেলেন। ফলে, দ্রুততম ৫ হাজার রানের মালিক বিরাটই।

বৃহস্পতিবার মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে খেলতে নামার আগে ৫০০০ রান করতে বিরাটের দরকার ছিল ৪৬ রান। ৩২ বল খেলে ঠিক ৪৬ রান করেই যশপ্রীত বুমরাহর বাউন্সারে আউট হয়েছেন। মেরেছেন ছ’টি বাউন্ডারি।

২০১৬ সালে আইপিএলে এক আসরেই ৯৭৩ রান করেছিলেন বিরাট। ছিল চারটি শতরান। ফাইনালে অবশ্য হায়দরাবাদের কাছে হেরে গিয়েছিল আরসিবি। এবছর আইপিএল শুরুর আগে ৪৯৪৮ রান ছিল বিরাটের। দ্বিতীয় ম্যাচেই ৫০০০ রান পূর্ণ করে ফেললেন তিনি।

২০০৮ সালে আইপিএলের উদ্বোধনী বছরে ১৩ ম্যাচে বিরাট করেছিলেন মাত্র ১৬৫। পরের বছর ১৬ ম্যাচে করেন ২৪৬। ২০১০ সালে ১৬ ম্যাচে করেছিলেন ৩০৭ রান। আর ২০১১ সালে ১৬ ম্যাচে তার সংগ্রহ ছিল ৫৫৭। ২০১৩ সালে বিরাট করেছিলেন ৬৩৪ রান। আর ২০১৭ সালে চোটের জন্য খেলেছিলেন ১০টি ম্যাচ। ২০১৮ সালে আবার ১৪ ম্যাচে করেন ৫৩০।

মন্তব্য: