ম্যাচের অন্তিম মুহূর্তে রেফারির বিতর্কিত পোনল্টিতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোতে বিদায় নিয়েছে পিএসজি। যা নিয়ে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন পিএসজি তারকা নেইমার।

পিএসজি-ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ম্যাচটা ভিআইপি বক্সে বসেই দেখেছেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার। দ্বিতীয়ার্ধের খেলা শেষ হওয়ার পর শুরু হয় ইনজুরি টাইমের খেলা। এ সময় পিএসজি দুই লেগ মিলে ৩-২ গোলে এগিয়ে ছিল। এভাবে ম্যাচ শেষ করলেই তারা পৌঁছে যেত কোয়াটার ফাইনালে।

কিন্তু তাদের কোয়ার্টারে পৌঁছানোর স্বপ্নে বাধা হয়ে দাঁড়ায় বিতর্কের জন্ম দেয়া ভিএআর। বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া ডিয়েগো দালোর শট ঘুরে উঠে লাফিয়ে বাধা দিয়েছিলেন প্রেসনেল কিমপেম্বে। প্রথমে রেফারি কর্নারের বাঁশি বাজালেও পরের মুহূর্তেই সিদ্ধান্ত নেন ভিএআরের সাহায্য নেওয়ার। ভিএআরের সাহায্য নিয়ে কিমপেম্বের বিরুদ্ধে হ্যান্ডবলের অভিযোগ এনে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। সেই পেনাল্টি থেকে গোল করেই ইউনাইটেডকে কোয়ার্টারে নিয়ে যান মার্কাস র‍্যাশফোর্ড।

বুধবার প্যারিসের মাঠে বসে নেইমার মোটেই মেনে নিতে পারেননি শেষ মুহূর্তে নিজের টিমের হার। ম্যাচ শেষ হতেই নেইমার চলে গিয়েছিলেন টানেলে, ম্যাচ অফিসিয়ালদের অফিসের দিকে। রেফারি দারিও স্কোমিনার উদ্দেশে চিৎকার করতে করতে যাওয়ার সময় পিএসজির কর্তারা তাঁকে আটকে রাখেন। পরে ইন্সটাগ্রামে নেইমারের মন্তব্য, ‘এটা কলঙ্ক। চারজন ফুটবল না জানা লোককে ভিএআর-এর রিপ্লে দেখতে বসানো হয়েছে। এটা মোটেই পেনাল্টি নয়। এটা কীভাবে পেনাল্টি হয়! বল তো লেগেছে পিঠে।’

মন্তব্য: