মঙ্গলবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ স্কোয়াড ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। এতে চমক হিসেবে আছে আবু জায়েদ রাহির নাম। জনপ্রিয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট বিষয়ক নিউজ পোর্টাল ক্রিকবাজ জানিয়েছে বাংলাদেশ দলের হেড কোচ স্টিভ রোডসের চাওয়াতেই বিশ্বকাপে দলে জায়গা পেয়েছেন রাহি।

বিশ্বকাপের ঘোষিত ১৫ সদস্যের দলে মাশরাফি, মস্তাফিজ ও রুবলের সঙ্গে চতুর্থ পেসার হিসেবে জায়গা করে নিয়েছেন আবু জায়েদ রাহি। তার জায়গা পাওয়াটা সকলের কাছেই বেশ অবাক করার মতো ছিল। কারণ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে রাহির ওয়ানডে ম্যাচ খেলার কোনো অভিজ্ঞতা নেই। জাতীয় দলের হয়ে পাঁচটি টেস্ট এবং তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে খেলেছেন তিনি।

অথাৎ, বিশ্বকাপেই আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচে অভিষেকের অপেক্ষায় রয়েছেন এই ক্রিকেটার। তবে আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচের অভিজ্ঞতা থাকা না সত্বেও বল সুইং করানোর ক্ষমতা আকৃষ্ট করেছে হেড কোচকে। আর তার চাওয়াতেই বিশ্বকাপের স্কোয়াডে ভিড়িয়েছেন নান্নু। একটি প্রতিবেদনে এমনটাই দাবি করছে জনপ্রিয় ক্রিকেট পোর্টাল ক্রিকবাজ। এদিকে দল ঘোষণার প্রধাণ মিনহাজুল আবেদীন নান্নুও জানিয়েছিলেন সুইং করানোর কথা মাথায় রেখেই রাহিকে দলে রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘নিউজিল্যান্ড কন্ডিশনে সে টেস্ট ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছিল, ওয়ানডে খেলার সুযোগ পায়নি। তবে সেই কন্ডিশনে আমরা যতটা দেখেছি যে ওর বোলিংয়ে যথেষ্ট সুইং আছে। আমাদের পেসারদের মধ্যে সুইং করতে পারে এমন বোলারের সংখ্যা বেশ কম।

‘যেহেতু ইংলিশ কন্ডিশনে খেলা, আয়ারল্যান্ডেও ত্রিদেশীয় সিরিজ আছে। আর মে এবং জুন মাসের দিকে ঠান্ডাও বেশি থাকে। তাপমাত্রাও অনেক কম থাকে। সেই হিসেবে পেসারদের মধ্যে সুইং বোলার কাউকে যদি অন্তর্ভুক্ত করতে পারি তাহলে সেটি আমাদের জন্য বাড়তি পাওনা। সেই চিন্তা করে রাহিকে দলে রাখা হয়েছে।’

মন্তব্য: