লা লিগার ইতিহাসে একক দলের জার্সি গায়ে সর্বাধিক জয়ের রেকর্ড গড়লেন বার্সা অধিনায়ক লিওনেল মেসি। শনিবার ঘরের মাঠে শিরোপা জয়ের পথে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদকে ২-০ গোলে হারায় কাতালানরা।

তবে গোল ব্যবধানটা আরো বাড়তে পারত। যদি না অ্যাথলেটিকোর গোলরক্ষক জান অবলাক দুদান্ত নয়টি নিশ্চিত গোল সেভ না করতেন। দ্বিতীয়ার্ধে পাঁচ মিনিট বাকি থাকতে এক মিনিটের ব্যাবধানে গোলের দেখা পান লিও মেসি ও লুইস সুয়ারেজ।

শনিবার গভীর রাতে লা লিগার গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ঘরের মাঠে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের মুখোমুখি হয়েছিল বার্সেলোনা। ম্যাচের ২৮ মিনিটে ১০ জনের দলে পরিণত হয় অ্যাথলেটিকো। স্প্যানিশ তারকা দিয়েগো কস্তা একটি সিদ্ধান্ত না মেনে রেফারিকে গালি দেয়ায় সরাসরি লাল কার্ডের সম্মুখীন হন। এ সময় বার্সা বেশ কয়েকটি গোলের সুযোগ তৈরি করতে পারলেও গোলরক্ষক অবলাকের প্রতিরোধে রক্ষা পায় অ্যাথলেটিকো।

দ্বিতীয়ার্ধেও ম্যাচের হিরো ছিলেন অবলাক। এ সময়ও তিনি বেশ কয়েকটি গোল সেভ করেন। তবে ম্যাচের ৮৫ মিনিটে সুয়ারেজের ২৫ গজ দূরের নিচু শট আর ঠেকানো হয়নি
অ্যাথলেটিকো গোলরক্ষকের। ৬০ সেকেন্ড পর প্রায় মাঝমাঠ থেকে ক্ষিপ্র এক দৌড়ে এসে জাল খুঁজে নিয়ে বার্সার দ্বিতীয় গোলটি করে প্রতিপক্ষকে ম্যাচ থেকে ছিটকে দেন মেসি। ফলে ২-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে তারা।

এই জয়ে ৩১ ম্যাচে ২২ জয় ও সাত ড্রয়ে শীর্ষে থাকা বার্সেলোনার পয়েন্ট বেড়ে হলো ৭৩। দুইয়ে থাকা অ্যাথলেটিকোর পয়েন্ট ৬২। লিগে বাকি আরও সাতটি ম্যাচ বাকি থাকলেও বড় কোনো অঘটন না ঘটলে টানা দ্বিতীয়বারের মতো শিরোপা ঘরে তুলতে যাচ্ছে বার্সা।

ম্যাচে গোল পেয়েছেন বার্সা অধিনায়ক লিও মেসি। সঙ্গে গড়েছেন নতুন নজিরও। শনিবারের ম্যাচের পর লা লিগার ইতিহাসে একক ফুটবলার হিসাবে সর্বোচ্চ জয় পেলেন তিনি। বার্সেলোনা জার্সিতে খেলে লা লিগায় ৩৩৫টি ম্যাচে জয় পেলেন।

টপকে গেলেন রিয়াল মাদ্রিদের প্রাক্তন তারকা গোলকিপার ইকার ক্যাসিয়াসকে। যিনি রিয়াল জার্সিতে লা লিগায় ৩৩৪টি ম্যাচে জয় পেয়েছিলেন।

মন্তব্য: