মঙ্গলবার বিশ্বের দ্বিতীয় দল হিসেবে পাঁচশ ওয়ানডে ম্যাচ জয়ের নজির স্থাপন করেছে ভারত। এর আগে একমাত্র অস্ট্রেলিয়াই ৫০০ জয়ের মাইলফলক ছুতে পেরেছে। এই অভিজাত শ্রেণীর মাইলফলক স্পর্শ করার অপেক্ষায় রয়েছে আরও বেশ কয়েকটি দল। চলুক দেখে নিই ক্রিকেট ইতিহাসে সর্বাধিক ওয়ানডে জেতা ৫টি দলের তালিকা।

অস্ট্রেলিয়া

এই তালিকায় সবার উপরে রয়েছে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার নাম। ১৯৮৭, ১৯৯৯, ২০০৩, ২০০৭ ও ২০১৫ – পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ও ১৯৭৫ ও ১৯৯৬ সালের রানার্স আপ-রাই একদিনের ক্রিকেটের সেরা দল

একদিনের ম্যাচ – ৯২৪

জয় – ৫৫৮
পরাজয় – ৩২৩
অমিমাংসিত – ৯
ফলাফলহীন – ৪০

জয়ের শতকরা হিসেব – ৬৩.২০%
সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী – রিকি পন্টিং (১৩,৫৮৯)
সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী – গ্লেন ম্যাগরা (৩৮০)

ভারত

২০১৯ সালের আসন্ন বিশ্বকাপ জেতার সবচেয়ে বড় দাবিদার ভারত। এর আগে ১৯৮৩ ও ২০১১ সালে দুইবার বিশ্ব-চ্যাম্পিয়ন হয়েছে এবং ২০০৩ সালে রানার্স-আপ হয়েছিল তারা।

একদিনের ম্যাচ – ৯৬৩

জয় – ৫০০
পরাজয় – ৪১৪
অমিমাংসিত – ৯
ফলাফলহীন – ৪০

জয়ের শতকরা হিসেব – ৫৪.৬৫%
সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী – শচীন টেন্ডুলকার (১৮,৪২৬)
সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী – অনিল কুম্বলে (৩৩৪)

পাকিস্তান

১৯৯২ সালের বিশ্বকাপ জয়ী এবং ১৯৯৯ সালের রানার্স আপ।

একদিনের ম্যাচ – ৯০৭

জয় – ৪৭৯
পরাজয় – ৪০১
অমিমাংসিত – ৮
ফলাফলহীন – ১৯

জয়ের শতকরা হিসেব – ৫৪.৩৯%
সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী – ইনজামাম-উল-হক (১১,৭৩৯)
সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী – ওয়াসিম আক্রম (৫০২)

ওয়েষ্ট ইন্ডিজ

প্রথম দুইবারের (১৯৭৫ ও ১৯৭৯) বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন।

একদিনের ম্যাচ- ৭৯৩

জয় – ৩৯০
পরাজয় – ৩৬৫
অমিমাংসিত – ১০

ফলাফলহীন – ২৮ জয়ের শতকরা হিসেব – ৫১.৬৩%
সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী – ব্রায়ান লারা (১০,৩৪৮)
সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী – কোর্টনি ওয়ালশ (২২৭)

শ্রীলঙ্কা

১৯৯৬ সালের বিশ্বকাপ জিতেছিল শ্রীলঙ্কা। ২০০৭ ও ২০১১ সালে হয় রানার্স-আপ।

একদিনের ম্যাচ- ৮৩২

জয় – ৩৭৯
পরাজয় – ৪১১
অমিমাংসিত – ৫
ফলাফলহীন – ৩৭

জয়ের শতকরা হিসেব – ৪৭.৯৮%
সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী – কুমার সাঙ্গাকারা (১৩,৯৭৫)
সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী – মুথাইয়া মুরলিধরণ (৫২৫)

বিস্ময়কর হলেও ক্রিকেটের জন্মদাতা দেশ ইংল্যান্ড, যারা প্রথম একদিনের ক্রিকেট খেলতে শুরু করেছিল তারাই এই তালিকায় প্রথম পাঁচে নেই। ৩৬২ জয় নিয়ে তারা আছে তালিকার ৭ নম্বরে।

এদিকে এই তালিকায় ১১তম অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। ৩৫৮ ম্যাচের মধ্যে ১১৮ ম্যচে জিতেছে তারা। আর হেরেছে ২৩৩ ম্যাচে। বাংলাদেশের ঠিক উপরে অবস্থান করছে জিম্বাবুয়ে। ৫১৭ ম্যাচের মধ্যে ১৩৪ টি ওয়ানডে ম্যাচে জিতেছে তারা। আরে হেরেছে ৩৬৫ টি ওয়ানডেতে।

মন্তব্য: