রাজস্থানের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাট করে ১৬০ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর সংগ্রহ করল সাকিবের হায়দরাবাদ। এই ম্যাচে সুযোগ পেয়েও নিরুত্তাপ ছিল সাকিবের ব্যাটিং। ১০ বল থেকে ৯ রান করেন তিনি।

জয়পুরের মানসিং স্টেডিয়ামে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নামে হায়দরাবাদ। এদিন উদ্ধোংশী জুটিতে ব্যাটিং করতে আসলেন ওয়ার্নার ও উইলিয়ামসন। এই জুটিতে ২৮ রান তোলার পর ব্যক্তিগত ১৩ রান করে ফিরে যান উইলিয়ামসন।

দ্বিতীয় উইকটে জুটিতে মানিশ পান্ডে ও ওয়ার্নার ৭৫ রানের জুটি গড়েন। ১৩তম ওভারে প্রথম বলে এই জুটিতে প্রতিরোধ গড়েন থমাস। ৩২ বল থেকে ৩৭ রান করে আউট হন ওয়ার্নার। এই ম্যাচ দিয়েই আইপিএল অভিযান শেষ করছেন ওয়ার্নার।

ওয়ার্নারের বিদায়ের পর ছন্দ হারায় হায়দরাবাদ। দলীয় ১২১ রানে ঝড়ো ব্যাটিং করা পান্ডেকে উইকেটের পেছনে স্যামসনের হাতে ক্যাচে পরিণত করেন শ্রেয়াশ গোপাল। পান্ডে ৯টি চারের মারে ৩৬ বল থেকে ৬১ রান করে আউট হন।

চতুর্থ উইকেটে ব্যাট করতে আসেন সাকিব। তবে এ সময় মাত্র ২ রানের ব্যবধানে ফিরে যান শঙ্কার (৮) ও হুডা (০)। দলীয় ১৩৭ রানে জোড়া ধাক্কা খায় হায়দরাবাদ। এ সময় থমাসের বলে ঋধিমান (৫) ও উনাদকাটের বলে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান সাকিব।

সাকিবের বিদায়ের পর শেষ ১১ বল থেকে ২৩ রান তোলে হায়দরাবাদ। যেখানে রশিদ খান ৮ বল থেকে ১৭ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন। এতে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৬০ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর পায় হায়দরাবাদ।

রাজস্থানের হয়ে বরুন অ্যারোন, ওশান থমাস গোপাল ও উনাদকাট প্রতোকে ২টি করে উইকেট নেন।

মন্তব্য: