বাংলাদেশ দলের শ্রীলঙ্কা সফরের সময় ভারতীয় ক্রিকেট ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ক্রিকবাজ একটি প্রতিবেদনে মাহমুদউল্লাহ ও সাকিবের মধ্যে মনোমালিন্যতার সংবাদ প্রকাশ করেছিল। যা নিয়ে পরবর্তীতে সেশ্যাল মিডিয়ায় কম জল ঘোলা হয়নি। তবে সাকিব-মাহমুদউল্লাহ’র খবর ফাঁস করেছেন মাশরাফি! হ্যাঁ, এমনটাই খবর জানাচ্ছে বাংলাদেশের অললাইন মিডিয়ার প্রথম শ্রেণীর নিউজ পোর্টাল জাগো নিউজ ২৪।

তাদের খবরে বলা হয়েছে, মাশরাফি প্র্যাকটিস শুরুর আগে স্টেডিয়ামের এক কোণে দাঁড়িয়ে সাংবাদিকদের সাথে আলাপে কথা প্রসঙ্গে এবং উদাহরণ টানতে গিয়ে শতভাগ অফ দ্য রেকর্ড মানে না লিখার শর্তে বলেছিলেন, ‘আমার তো দিন প্রায় শেষ। এটাই শেষ বিশ্বকাপ। এরপর তো সাকিবই ক্যাপ্টেন হবে। সাকিব অধিনায়ক হলে কিন্তু অনেকেরই খবর আছে। সাকিব অধিনায়ক হিসেবে খুবই সিরিয়াস এবং হার্ড টাইপের। সে মাঠের পারফরম্যান্সকে খুব সিরিয়াসলি নেয়। কেউ এক ম্যাচ ভাল খেলতে না পারলে আর অ্যাপ্রোচটা ঠিক না থাকলে তাকে বাদ দিতেও দ্বিধা করবেনা। এই যেমন ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাহমুদউল্লাহর স্লো ব্যাটিং (৩৮৭ রান তাড়া করে ৪১ বলে ২৮) দেখে তাকে এক ম্যাচ না খেলানোর কথা বলেছিল সাকিব।’

আর সবার মত এ প্রতিবেদকও ছিলেন ঐ আড্ডায়। এবং সবচেয়ে বড় কথা মাশরাফি তার হাত ধরে না লেখার অনুরোধ করেছিলেন। জাগো নিউজে সে তথ্য প্রকাশিত না হলেও কেউ না কেউ তা লিখে ফেলেন। এবং তা নিয়ে খানিক মনোমালিন্যও সৃষ্টি হয়।

এ নিয়ে রবিবার সংবাদ মাধ্যমে সকল ধোঁয়াশা দূর করেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘আমার মনে হয়, ঐ ধরনের জিনিস নিয়ে কথাবার্তা না বলাই ভালো। আমি ঐ ব্যাপারে কোনও মন্তব্য করতে চাচ্ছি না। শুধু একটা কথা বলতে চাই। কিছু কিছু জিনিস যেভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে সেভাবে হয়নি। উপস্থাপন ভিন্নভাবে হতে পারতো। শুধু এটুকুই বলতে চাই। আমার মনে হয় না, দলের কারো সাথে আমার কোনও গণ্ডগোল হয়েছে। আমরা যথেষ্ট ভালো বন্ধু। ড্রেসিং রুমে আপনারা চাইলে আসতে পারেন, আমরা কিভাবে কথা বলি বা কিভাবে মজা করি দেখতে পারেন। আপনারা সবাই আমন্ত্রিত। ছোটো হোক বড় হোক, আমরা একে অপরের সাথে কতটুকু ভালোভাবে থাকতে পারি, দেখতে পারেন আপনারা। আমি আমার দিক থেকে শতভাগ চেষ্টা করে যাচ্ছি, আমি যেন সবার সাথে ভালোভাবে থাকতে পারি। সবসময় এই কথা বলে এসেছি। আমি চাই আগামী দিনেও এই কথা বলতে।’

একই দিন সাকিবের সঙ্গে দ্বন্দ্ব নিয়ে নিজের ফেসবুকে একটি ভিডিও বার্তায় বলেছিলেন, ‘আশা করি সবাই ভালো আছেন। কিছুক্ষণ আগে অনলাইন নিউজে একটা খবর দেখলাম যে, সাকিবের সাথে ড্রেসিংরুমের ঘটনাটাকে ভিন্নভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। আসলে সাকিবের সাথে আমার কোনো ধরনের দ্বন্দ্ব বা সমস্যা কিছুই হয়নি। আমরা অনেক দিন ধরেই একসাথে খেলছি। আমরা খুবই ভালো টিমমেট ছিলাম, এখনও আছি, ইনশাআল্লাহ ভবিষ্যতেও থাকব।’

‘আমার মনে হয় এটা মিথ্যা একটা কথা যে, সাকিবের সাথে আমার কোনো রকমের ইস্যু হয়েছে। এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা। এ জিনিসটা আমার মনে হয়েছে পরিষ্কার করা প্রয়োজন। এজন্যই আমার এই ভিডিওটা পাঠানো। সামনে আমাদের অনেক গুরুত্বপূর্ণ খেলা আছে। সবার জন্য দোয়া করবেন যেন আমরা বাংলাদেশের হয়ে ভালো খেলতে পারি। আসসালামু আলাইকুম।’

মন্তব্য: