টি-টোয়েন্টি মানেই উত্তেজনা। ম্যাচের শুরু থেকে থেকে শেষ পর্যন্ত। তবে অনেক সময় নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ম্যাচের ফয়সালা হয় না। ম্যাচ টাই হয়। সে ক্ষেত্রে সুপার ওভার ম্যাচের নির্ণায়ক হয়ে ওঠে। আইপিএলেও এমন নজির রয়েছে। ফলে সুপার ওভারের দলের সেরা বোলাররাই যে সুযোগ পান তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

দেখে নিন প্রতি দল থেকে এমন একজন বোলারের ব্যাপারে যিনি সুপার ওভারে দলের দায়িত্ব পেতে পারেন:

১। ইমরান তাহির (চেন্নাই সুপার কিংস)

চেন্নাই দলের অন্যতম সেরা বোলার। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে সদ্য টি২০ সিরিজের একটি ম্যাচে সুপার ওভারে বল করেছিলেন। দরকার ছিল ১৫ রান। তাহির মাত্র ৪ দিয়েছিলেন। অভিজ্ঞতার দিক দিয়ে সুপার ওভার পরিস্থিতিতে দলের দায়িত্ব পাওয়ার অন্যতম দাবিদার হতে পারেন।

২। সুনীল নারিন (কলকাতা নাইট রাইডার্স)

কলকাতা নাইট রাইডার্সের তারকা বোলার। ফলে সুপার ওভারে তাঁর নাম যে তালিকায় শীর্ষে থাকবে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়র লিগে ২০১৪ সালে একটি ম্যাচে সুপার ওভারে মেডেন ওভার করেছিলেন তিনি।

৩। জয়দেব উনাদকাট (রাজস্থান রয়্যালস)

আইপিএলে অন্যতম অভিজ্ঞ বোলার। রাজস্থান রয়্যালসে বেন স্টোকস, আর্চাররা থাকলেও আইপিএল খেলার দিক দিয়ে অভিজ্ঞতা বেশি উনাদকাটের। অফস্টাম্পের বাইরে বল করতে পারদর্শী। সুপার ওভারে উইকেট নেওয়ার অভিজ্ঞতাও আছে।

৪। ট্রেন্ট বোল্ট (দিল্লি ক্যাপিটালস)

দিল্লি দলে ক্রিস মরিস, কাগিসো রাবাডারা থাকলেও, প্রথম পছন্দ হতে পারেন বোল্ট। বিশ্বের অন্যতম সেরা বোলার। নিউজিল্যান্ডের জাতীয় দলের সেরা অস্ত্র। শেষ ওভারগুলিতে বল করার অভিজ্ঞতা প্রচুর। যা সুপার ওভারে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে।

৫। আন্দ্রে টায় (কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব)

দলে মুজিব উর রহমান, স্যাম কুরান এমনকি অধিনায়ক রবিচন্দ্রন অশ্বিনের মতো বোলার থাকলেও, প্রথম পছন্দ হতে পারেন টায়। ম্যাচের শেষ ওভারগুলিতে বল করার অভিজ্ঞতা বেশি। গত বছরের টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ উইকেট নিয়েছিলেন।

মন্তব্য: