শুক্রবার ইডেন গার্ডেন্সে দিল্লির ডাগ আউটে কি বসতে পারবেন দলের পরামর্শদাতা সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়? এই প্রশ্নই ঘোরাফেরা করছে ইডেন গার্ডেন্সের আনাচে কানাচে। কেকেআরের বিরুদ্ধে দিল্লির ডাগ আউটে সৌরভের বসতে কোনও বাধা নেই স্পষ্ট করে দিলেন এক বোর্ড কর্তা। তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন ওম্বুডসম্যান ডিকে জৈন।

১২ এপ্রিল ইডেন গার্ডেন্সে প্রভাব খাটাতে পারেন দিল্লির পরামর্শদাতা তথা সিএবি প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। স্বার্থের সংঘাতের অভিযোগ তুলে তিন কেকেআর ফ্যান রঞ্জিত কুমার শিল, অভিজিত্ মুখোপাধ্যায় এবং ভাস্বতী সাতুয়া সৌরভের বিরুদ্ধে বিসিসিআইয়ের ওম্বুডসম্যান ডিকে জৈনের কাছে অভিযোগ জানান। তাঁদের অভিযোগের ভিত্তিতেই সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে নোটিস পাঠায় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। ‘স্বার্থের সংঘাত’ এই অভিযোগ অস্বীকার করে বোর্ডের ওম্বুডসম্যানকে চিঠির উত্তরও দিয়ে দিয়েছেন সৌরভ।

শুক্রবার ইডেনে কলকাতা বনাম দিল্লি ম্যাচে দিল্লির ডাগ আউটে বসতে কোনও সমস্যা নেই সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের। সংবাদ সংস্থা PTI কে বোর্ডের এক কর্তা জানিয়েছেন, “দিল্লি ক্যাপিটালসের ডাগ আউটে বসতে সৌরভের কোনও বাধা নেই। যদিও স্বার্থের সংঘাত বিষয়ে শেষ কথা বলবেন ওম্বুডসম্যান। যদিও কোনও নিয়ম নেই যে কারণে সৌরভ ডাগ আউটে বসতে পারবেন না।” সেই সঙ্গে ওই বোর্ড কর্তা আরও জানান, “তবে সৌরভ ডাগ আউটে না বসে অন্য কোথাও বসবেন কিনা সেটা জানা নেই। সেটা সম্পূর্ণভাবে সৌরভের ওপর নির্ভর করছে। তবে ডিকে জৈন এটাও স্পষ্ট করে দিয়েছেন, এটা একটা কোনও বিশেষ ম্যাচের জন্য প্রযোজ্য নয়।”

নিয়ম অনুযায়ী ওম্বুডম্যানের চিঠির উত্তর দিয়ে দিলেও তাঁদেরকে জৈনের সঙ্গে দেখা করতে হবে একবার। যেমনটা কেএল রাহুল এবং হার্দিক পাণ্ডিয়ার ক্ষেত্রেও হচ্ছে। উত্তর দিলেও তাঁদের সঙ্গে মুখোমুখি কথা বলতে চান ডিকে জৈন।

মন্তব্য: