shahid afridi,
ক্রিকেটের একটি চিরন্তন সত্য প্রবাদ হলো ‘ক্যাচেস উইনস ম্যাচেস’। আবার ‘ক্যাচ মিস তো ম্যাচ মিস’ এই কথাটির সাথেও কিন্তু আমরা কম পরিচিত নই। একটি মাত্র ক্যাচ ম্যাচের ভাগ্য পরিবর্তন করে দিয়েছে এমন নজিরের অভাব নেই। জন্টি রোডস, ডেভিড ওয়ার্নার এবং যুবরাজ সিংরা ক্রিকেটে অসাধারণ অনেক ক্যাচ নিয়ে ম্যাচের ভাগ্য পরিবর্তন করে দিয়েছেন অনেক বারই এবং ফিল্ডিংকে নিয়ে গিয়েছেন অন্য এক উচ্চতায়।

ফিল্ডিং নিয়ে পাকিস্তানী ক্রিকেটারদের বদনাম আছে সে অনেক দিন থেকেই। পাকিস্তানী ক্রিকেটারদের সহজ সহজ ক্যাচ বা ফিল্ডিং মিস করা সাক্ষী হয়ে আছে ইতিহাস। কিন্তু মাঝে মাঝে তারা আবার এমনই অসাধারণ ফিল্ডিং করে দেখায় যে অনেক দিনের জন্য ভুলে যেতে হয় তাদের নগন্য বা বিশালাকার সেই বার্থতাগুলো।

শুক্রবার পাকিস্তান সুপার লিগে করাচি কিংস বনাম কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্সের মধ্যে ম্যাচ চলাকালীন সময়ে অনেকদিন পর এমনই একটি জ্বলন্ত উদহারণ সৃষ্টি করলেন বুম বুম খ্যাত ৩৭ বছর বয়সী শহীদ আফ্রিদি। এই ম্যাচের অসাধারণ একটি ক্যাচ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন চলছে আফ্রিদির বন্দনা। অসাধারণ এই ক্যাচটি নিয়ে আফ্রিদি যেন দেখিয়ে দিলেন হারিয়ে যাননি তিনি, আগের মতোই বসবাস করছেন তার ফ্যানদের বুকে ভালোবাসার সাথে।

ঘটনাটি ঘটেছে কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্সের ইনিংসে। বাঁ হাতি ব্যাটসম্যান উমর আমিন মোহম্মদ ইরফানের বলকে গ্যালারির বাইরে পাঠানোর চেষ্টা করলে সেই বল লাফিয়ে এক হাতের তালুবন্দি করে ফেলেন আফ্রিদি। যদিও ক্যাচ নিতে গিয়ে ব্যালেন্স হারিয়ে মাঠের বাইরে চলে গিয়েছিলেন তিনি, তবুও বলটি মাঠের ভিতরে ছুড়ে দিয়ে আবার মাঠে ঢুকে ধরে ফেলেন সেটি আর তাতেই সৃষ্টি হয়ে যায় অসাধারণ একটি ক্যাচের।

মন্তব্য: