ওয়াংখেড়েতে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল চেন্নাই। ঘরের মাঠে প্রথমে ব্যাট করে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৭০ রান তুলল মুম্বাই। ইনিংসের শেষ দুই ওভারে হার্দিক ও পোলার্ড ব্যাট হাতে ঝড় তোলেন।

আসরের শুরু থেকে চাপের মধ্যে রয়েছে মুম্বাই। শুরুতে ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ৮ রানের সময় ডি ককের উইকেট হারায় মুম্বাই। অন্য ওপেনার রোহিত শর্মা এদিনও ব্যাট হাতে ব্যর্থ হন। দলীয় ৪৫ রানে ১৮ বল থেকে ১৩ রান করে জাদেজার বলে ক্যাচ আউট হয়ে ফিরে যান।

তৃতীয় উইকেটে ব্যাট করতে আসা যুবরাজ ৪ রান করে বাউন্ডারিতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন । এতে ৮.৩ ওভার শেষে মুম্বাইয়ের স্কোর দাড়ায় ৫০/৩। চতুর্থ উইকেটে মুম্বাইয়ে খেলায় ফিরিয়ে আনে সুরিয়া কুমার ও কুনাল পান্ডিয়া জুটি।

এই জুটিতে আসে ৭২ রান। ১৭তম ওভারের মাঝামাঝি সময়ে ৩২ বল থেকে ৪২ রান করা পান্ডিয়ার উইকেট তুলে নেন মোহিত। এরপর দ্রুত রান তোলার তাগিদে বাউন্ডারিতে ক্যাচ আউট হয়ে ফিরে যান অন্য সেট ব্যাটসম্যান সুরিয়া কুমার যাদব। ব্রাভোর বলে আউট হওয়ার আগে তিনি ৪৩ বল থেকে ৫৯ রান করেন।

যাদবের বিদায়ের পর মুম্বাইয়ের হাতে ছিল দুই ওভারে। এ সময় ক্রিজে থাকা পোলার্ড ও হার্দিক জুটিতে ৪৫ রান নেন। যেখানে ব্রাভোর কার ২০তম ওভারেই আসে ২৯ রান। এ সময় ২টি ছক্কায় পোলার্ড ৭ বর থেকে ১৭ রান এবং হার্দিক ১টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৮ বর থেকে ২৫ রান নিয়ে অপারজিত থাকেন।

চেন্নাইয়ে হয়ে বল হাতে দীপক চাহার, মোহিত শর্মা, ইমরান তাহির, জাদেজা ও ব্রাভো প্রত্যেকে ১টি করে উইকেট নেন।

মন্তব্য: