মোহাম্মদ আমিরের বোলিং তোপে ৩০৭ রানে অলআউট হলো অস্ট্রেলিয়া। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে সেঞ্চুরি করেছেন ডেভিড ওয়ার্নার। বল হাতে আমির মাত্র ৩০ রান দিয়ে বিশ্বকাপে নিজের প্রথম ৫ উইকেট নেওয়ার স্বাদ নিলেন।


টনটনে টসে হেরে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং সূচনাটা ছিল দারণ। উদ্ধোধনী জুটিতে ফিঞ্চ ও ওয়ার্নার তোলেন ২২.১ ওভারে তোলেন ১৪৬ রান। এই জুটি আরো লম্বা হওয়ার আগেই ফিঞ্চের ইনিংসে দাড়ি টানেন আমির।

ফিঞ্চ ৮৪ বল থেকে ৮২ রান করে। ফিঞ্চের পর দলের হাল ধরেন ওয়ার্নার। কিন্তু তাকে অন্য প্রান্ত থেকে কেউই যোগ্য সমর্থন দিতে পারেন। ১০২ বল থেকৈ সেঞ্চুরি তুলে নেওয়ার পর ওয়ার্নার যখন শাহিন আফিদ্রীর বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তখনই ২৪২ রানে চতুর্থ উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। ওয়ার্নারের আগে স্মিথ ১০ ও ম্যাক্স ওয়েল ২০ রান করে বিদায় নেন।

ওয়ার্নারের বিদায়ের পর ক্রিজে আসা ক্রিজে মার্স (২৩) ও খোয়াজা (১৮) ক্রিরেজ স্থায়ী হতে দেননি আমির।

শেষ দিকে অস্টেলিয়ার হয়ে অ্যালেক্স ক্যারি ২১ বল থেকে ২০ রান করলে তিনশোর রানে মাইলফলক পেরোয় অস্টেলিয়া। ইনিংসের ৪৯তম ওভারে ক্যারি ও স্টার্ককে তুলে নিয়ে নিজের পাঁচ উইকেট পূরণ করেন আমির। একই সাথে এতে এক ওভার বাকি থাকতে সবকটি উইকেট হারিয়ে ৩০৭ রানে থেমে যায় অস্ট্রেলিয়া।

বিশ্বকাপের আগে ১৪ ইনিংসে আমিরের প্রাপ্তি যেখানে ছিল মাত্র ৫ উইকেট। সেখানে বিশ্বকাপের মাত্র ৩ ম্যাচে ৯ উইকেট নিয়ে শীর্ষ উইকেট শিকারি তালিকায় প্রথম স্থান দখল করলেন।

পাকিস্তানের হয়ে আমির ছাড়াও আজ শাহিন আফিদ্রী ৭০ রানে নিয়েছেন ২টি উইকেট। হাফিজ, ওয়াহাব রিয়াজ ও হাসান আলী নেন ১টি উইকেট।

মন্তব্য: