আসন্ন বিশ্বকাপকে সামনে রেখে রবিবার ১৫ জনের দল ঘোষণা করেছে ভারত। দলে ঢোকার রুদ্ধশ্বাস দৌড়ে শেষ মুহূর্তে ঋষভ পন্থকে ছিটকে দিয়ে অনেককেই চমকে দিয়ে দলে ঢুকে পড়েছেন দীনেশ কার্তিক। দ্বিতীয় উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান হিসেবে। মঙ্গলবার সেই দীনেশ কার্তিকই তাঁর প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী ঋষভ পন্থ সম্পর্কে ওপরের প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘সত্যি, কষ্ট হচ্ছে ওর জন্যে। বুঝতে পারছি এখন কী চলছে ওর মধ্যে। কতটা খারাপ লাগা থাকতে পারে। আমি নিজেকে ওর জায়গায় নিয়ে গিয়ে বোঝার চেষ্টা করছি। আমার ক্ষেত্রেও এমন ঘটলে আমারও খুব মনখারাপ হত। ঋষভ খুব প্রতিভাবান ক্রিকেটার। আরও অনেক দিন খেলবে। উজ্জ্বল ভবিষ্যত্‍ পড়ে রয়েছে। সবচেয়ে বড় কথা, খুবই মজার ছেলে। প্রাণবন্ত ছেলে। আমি ওর যন্ত্রণা উপলব্ধি করতে পারছি।’

২০০৭-এ ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিশ্বকাপ দলে শেষবারের মতো ছিলেন। তার পর দীর্ঘ ১২ বছর পর আবার বিশ্বকাপ দলে সুযোগ। এ তো রূপকথাকেও হার মানায়!‌ দীনেশ বলছেন, ‘আমি ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি এবং কোচ রবি শাস্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞ। ওঁরা দু’জন আমার ওপর ভরসা রেখেছেন বলেই আমি শেষ পর্যন্ত সুযোগ পেলাম। একটা দল হিসেবে এক বিশেষ প্রক্রিয়ার মধ্যে আমিও ছিলাম। সে জন্য বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পাওয়ার জন্য মরিয়া ছিলাম।’

২০০৭-এর পর আবার ২০১৯। ১২ বছরে তিনি কতটা বদলেছেন? মুখে হাসি নাইট রাইডার্স অধিনায়কের। ‘তখন অনভিজ্ঞ ছিলাম। তার পর এই ১২ বছরে প্রচুর অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করেছি। তখন আমি ছটফটে অস্থিরমতির মানুষ ছিলাম। এখন অনেক শান্ত হয়েছি। এখন অনেক পরিণত। সে-সময়ের থেকে এখন অনেকটাই বদল ঘটেছে আমার।’

মন্তব্য: