চলতি আইপিএলে টানা ৬টি ম্যাচে পরাজয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর৷ আইপিএল পরিসংখ্যান বোর্ডের দিকে তাকালে দেখা যায় এর আগে আসরের প্রথম ছয়টি ম্যাচ হেরেছিল দিল্লি ডেয়ারডেভিলস। সেই হিসেবে টানা ছয় ম্যাচ হারের দিকে থেকে দিল্লি ও বেঙ্গালুুরু যৌথ্য ভাবে শীর্ষ স্থানে রয়েছে। তবে আর একটি ম্যাচ হারলেই এক আসরে সর্বোচ্চ হারের রেকর্ডটি একান্তই নিজের করে নেবে ব্যাঙ্গালুরু।

অবশ্য, গত বছর রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে শেষ ম্যাচে হার মিলিয়ে আইপিএলে এক টানা সাতটি ম্যাচে পরাজিত হওয়ার লজ্জাজনক নজির গড়ল আরসিবি৷

এবছর চিপকে চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে হার দিয়ে আইপিএল অভিযান শুরু করে কোহলি অ্যান্ড কোং৷ পরে মুম্বাই ও কলকাতার কাছে হোম ম্যাচে এবং হায়দরাবাদ ও রাজস্থানের কাছে অ্যাওয়ে ম্যাচে পরাজয় স্বীকার করতে হয় ব্যাঙ্গালুরুর৷ এবার দিল্লি ক্যাপিটালসের কাছে ঘরের মাঠে মাথা নত করে আরসিবি৷ দিল্লি ৪ উইকেটে পরাজিত করে কোহলিদের৷

চলতি আইপিএলে কোহলিরদের এখন অবদি খেলা ছয়টি ম্যাচে কোনো পয়েন্ট তুলতে না পারায় টেবিলের তলনীতেই পড়ে আছে। তবে আসরে ক্যাচ ফসকানোর দিক থেকেও শীর্ষ স্থানটি ধরে রেখেছে কোহলির দল। এখনো পর্যন্ত ৬ ম্যাচে সবমিলিয়ে মোট ১৪টি ক্যাচ ছেড়েছে ব্যাঙ্গালুরু। এই ক্যাচ মিসকেই ম্যাচ হারের প্রধাণ অন্তরায় বলে মনে করছে বেঙ্গালুরু।

তবে শুধু ক্যাচ ফসকানো নয় নো বল করার ক্ষেত্রেও দ্বাদশ আইপিএলে শীর্ষ স্থানে রয়েছে কোহলিরা। নো বল করার ফলশ্রুতিতে প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানরা ছয়টি ফ্রি হিট থেকে বোনাস ২৪ রান সংগ্রহ করেছে।

মন্তব্য: