চলতি বছরের ৭ সেপ্টেম্বর থেকে মাঠে গড়াচ্ছে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের সপ্তম আসর। আসর শেষ হবে ১২ অক্টোবর। এই আসরের প্লেয়ার ড্রাফটে জায়গা পাওয়া ৫৩৬ ক্রিকেটারদের তালিকা প্রকাশ করেছে তারা। যেখানে বাংলাদেশের হয়ে জায়গা পেয়েছেন ১৮ ক্রিকেটার।

আসন্ন সিপিএল আসরে প্লোয়ার ড্রাফটে জায়গা পাওয়া বড় বড় ক্রিকেটারদের মধ্যে রয়েছেন, জাফ্রি আর্চার, সাকিব আল হাসান, জেপি ডুমেনি, রশিদ খান ও অ্যালেক্স হেলস। ছয়টি দল নিজেদের ড্রাফট থেকে নিজেদের পছন্দ মতো ক্রিকেটারদের নিলাম প্রক্রিয়ার মাধ্যমে দলে টানতে পারবেন।

তবে নিলাম প্রক্রিয়ায় অংশ নেওয়ার আগে ছয়টি ফ্রাঞ্চাইজি সর্বাধিক ৬ জন ক্রিকেটারকে ধরে রাখতে পারবে। তবে ধরে রাখা ক্রিকেটারদের মধ্যে সর্বনিম্ন তিনজন স্বদেশি ক্রিকেটার এবং সর্বোচ্চ চারজন ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটার হতে হবে। আর এক জনের বেশি বিদেশি ক্রিকেটার ধরে রাখতে পারবে না দলগুলো।

ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ সিপিএলে সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, রিয়াদের খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে। এই তিন ক্রিকেটারই ছিল সিপিএলের ষষ্ঠ আসরে। তবে ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে সে আসর থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন তামিম ও সাকিব। প্লেয়ার ড্রাফট অনুষ্ঠিত হবে ২২ মে।

গতকাল বুধবার নিলামের তালিকায় থাকা খেলোয়াড়ের নামগুলো প্রকাশ করেছে ক্যারিবিয়ান ক্রিকেট বোর্ড। বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি পাকিস্তানের রয়েছে ৮৩ জন। দক্ষিণ আফ্রিকার ৪৮ জন, ইংল্যান্ডের ৪১ জন, আফগানিস্তানের ৩৫ জন, শ্রীলঙ্কার ৩৪ জন, নিউজিল্যান্ডের ২৩ জন ও বাংলাদেশের ১৮ জন।

সিপিএলে যেসব বাংলাদেশি তারকা ক্রিকেটাররা ডাক পেয়েছেন তারা হল:

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আবু হায়দার রনি, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, তাসকিন আহমেদ, সাকিব আল হাসান, জুবায়ের হোসেন লিখন, তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, এনামুল হক বিজয়, লিটন দাস, জাকির হাসান, আরিফুল হক, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ মিঠুন, সাব্বির রহমান, মুশফিকুর রহিম, আবুল হাসান রাজু।

মন্তব্য: