সোমবার মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপ স্কোয়াডের আনুষ্ঠানিক ফটোসেশনের সময় উন্মোচন করা হয় বাংলাদেশ দলের বিশ্বকাপ জার্সির। তবে ফটোসেশনের আগেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জার্সির ছবি ছড়িয়ে পড়ার পর থেকেই ডিজাইন নিয়ে অনেকেই নেতিবাচক রিভিউ দিয়েছেন।

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের জার্সির রং গাঢ় এবং হালকা সবুজ। পুরো জার্সিতে কোথাও লাল রং নেই। আর এতেই ক্ষেপেছেন সমর্থকরা। অনেকে এই জার্সির সঙ্গে তুলনা করছেন আয়ারল্যান্ড আর পাকিস্তানের জার্সির। ফেসবুকে অনেকে অনেক রকম মন্তব্য করছেন।

অবশেষে একদিন পরই বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জার্সি পরিবির্তনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) সংবাদমাধ্যমকে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, ‘বাংলাদেশ দলের জার্সি পরিবর্তন করা হবে। কোনো দলের পার্টিসিপেটিং জার্সির স্যাম্পল আগে আইসিসিকে পাঠিয়ে এনডোর্সমেন্ট নিয়ে নেয়া হয়। যেহেতু বাংলাদেশ দলের জার্সি আংশিক পরিবর্তন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে সেহেতু আগে আইসিসিকে জানাতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের বোর্ড সভাপতি ইতোমধ্যে বলেছেন এটার ব্যাপারে কাজ করার জন্য এবং আমরা এর ‍ওপরে কাজ করছি।’

জার্সি পরিবর্তন নিয়ে বিসিবির মিডিয়া কমিটির প্রধান জালাল ইউনুস বলেন, ‘জার্সি বদল করতে আমরা আইসিসিকে জানাব। যেহেতু আগের জার্সির নকশা চূড়ান্ত হয়েছে, তাই চাইলেই বদল করা যায় না। একটা প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে যেতে হয়।’ আইসিসির কাছ থেকে জার্সি পাল্টানোর অনুমতি মিললে নতুন নকশা কেমন হবে?

বিসিবি মিডিয়া কমিটি প্রধানের জবাব, ‘নকশা কী হবে, সেটা আমরা পরে বলতে পারব। তবে যে বিষয়টি নিয়ে কথা উঠেছে, সবুজের মধ্যে লাল রং নেই, আমরা পরিবর্তিত জার্সিতে অবশ্যই লাল রং রাখার চেষ্টা করব।’

মন্তব্য: