আসন্ন বিশ্বকাপ ও আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজতে সামনে রেখে আজ ১৭ সদস্যের দল ঘোষণা করতে যাচ্ছে বিসিবি। বিশ্বকাপে ১৫ সদস্যের দল পাঠালেও ত্রিদেশীয় সিরিজের ১৭ সদস্যের দল দিচ্ছে বিসিবি। বিশ্বকাপের আগে শেষ আন্তর্জাতিক সিরিজটিতে ক্রিকেটারদের শেষ বারের মতো পরোখ করে নিতে চায় বিসিবি।

হালকা ইনজুরি নিয়ে ঘরোয়া লিগে খেলা সাইফুদ্দীনের বিশ্বকাপ দলে জায়গা পাওয়াটা এক রকম নিশ্চিত। সোমবার সংবাদিকদের সেটা এক রকম নিশ্চিত করেছেন বিসিবি সভাপতি। তবে ইনজুরি কাটিয়ে সদ্য ঘরোয়া লিগে ফেরা তাসিকনের বিশ্বকাপ দলে জায়গা পাওয়া এখনো অনিশ্চিত।

পাপন বলেন, ‘অভিজ্ঞতা তো একটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেই। তবে ফর্মও একটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। পজিশনও খুব ইম্পরট্যান্ট। আমাদের সমস্যা হল একটা পজিশনে অনেকগুলো অপশন আছে। আবার আরেকটা জায়গায় এত অপশনই নেই। পেস বোলিংয়ে আহামরি অপশন নেই। রুবেল, মুস্তাফিজ, মাশরাফি, সাইফুদ্দিন যাচ্ছে। আরেকজন কে যাবে? ধরলাম তাসকিন যাচ্ছে। কিন্তু তাসকিন তো ইনজুরিতে।’

‘আমরা এখনও জানি না ও খেলতে পারবে কি না বা যখন পুরো ছন্দে ফিরে আসবে তখন অবস্থাটা কী হবে। ওর বল ভালো হচ্ছে কি না- এগুলো তো জানতে হবে। আপনি দেখবেন এসব পজিশনে খুব বেশি নাম পাবেন না, একটা কী দুইটা থাকতে পারে।’

এছাড়া স্পিন আক্রমণে জোর দিতে ত্রিদেশীয় সিরিজে একজন স্পিনার বাড়ানোর কথাও উল্লেখ করেছেন বোর্ড সভাপতি। সাকিব আল হাসান ও মেহেদী হাসান মিরাজ ছাড়াও ত্রিদেশীয় সিরিজে দলের সঙ্গে আরও একজন স্পেশালিষ্ট স্পিনার যেতে পারেন।

‘স্পিনও আমরা দেখছি। আমাদের তো স্পিনার আছেই। তবে ত্রিদেশীয় সিরিজে আমরা আরও একজনকে যাচাই করার কথা ভাবছি। সাকিব এবং মিরাজের বাইরেও আরেকজন। এক্স্যাক্ট নামটা এখনই বলতে পারছি না তবে ত্রিদেশীয় সিরিজে একজন স্পিনার থাকছে।’ বলছিলেন পাপন।

মন্তব্য: