পাকিস্তান দলের হেড কোচের পদ থেকে সরে যেতে হচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকার মিকি আর্থারকে। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড তার সঙ্গে নতুন চুক্তি না করায় ১৫ আগষ্টের পর হেড কোচের পদ ছাড়তে হচ্ছে তাকে। তবে শুধু আর্থার নয় পাকিস্তান দলের পুরো কোচিং স্টাফদের চুক্তি নাবায়ন করেনি পিসিবি। ফলে চাকরি হারিয়েছেন বোলিং কোচ আজহার মাহমুদ, ব্যাটিং কোচ গ্র্যান্ট ফ্লাওয়ার এবং ট্রেনার গ্র্যান্ট লুডেন।

বিশ্বকাপে পাকিস্তানের ব্যর্থতার পর আর্থারের চাকরি হারানো কিছুটা অনুমিতই ছিল। তা সত্বেও বিশ্বকাপের পর সরফরাজ আহম্মেদকে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে পাকিস্তান দলের সঙ্গে আর কিছু সময় কাজ করার। তবে পিসিবি সেই পথে না হেঁটে আর্থারকেই সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলো।

বুধবার পিসিবি বিবৃতিতে জানায়, হেড কোচের সঙ্গে আর চুক্তি বাড়াচ্ছে না তারা। একই সঙ্গে বোলিং কোচ আজহার মাহমুদ, ব্যাটিং কোচ গ্র্যান্ট ফ্লাওয়ার ও ট্রেইনার লুডেনের সঙ্গেও চুক্তি না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা।

বিবৃতিতে তারা আরও জানায়, ‘পিসিবির ক্রিকেট কমিটি শুক্রবার সর্বসম্মতিক্রমে এই পরিবর্তনের পক্ষে ছিলেন। কমিটির সুপারিশগুলো পিসিবি চেয়ারম্যান এহসান মানির সঙ্গে আলোচনা করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

পিসিবি আরও জানিয়েছে, ‘অক্টোবরে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ থাকায় শিগগির নতুন নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করে দিবে তারা।’

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের মে মাসে পাকিস্তানের কোচ হয়ে এসেছিলেন মিকি আর্থার। তার অধীনে ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জিতে নেয় পাকিস্তান। তবে গেলো ২০১৯ বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বে পঞ্চম স্থানে থেকে আসর শেষ করে পাকিস্তান। ফলে তার সঙ্গে পুরো কোচিং স্টাফকে সরিয়ে দিলো পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

মন্তব্য: