বিশ্বকাপের আগে আফগানিস্তান দলে ব্যাপক পরিবর্তন আনা হয়েছে। নিয়মিত অধিনায়ক আসগর আফগানকে সরিয়ে তিন ফরম্যাটেই অধিনায়ক ও সহ-অধিনায়কের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বোর্ডের এই সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছেন রশিদ খাও ও নবীরা।

বিশ্বকাপের দুই মাস আগে তিন ফরম্যাটেই নতুন অধিনায়ক ঘোষণা করেছেন টেস্ট ক্রিকেটের নবাগত এই সদস্য দেশটি। আফগানিস্তান দলের নতুন অধিনাকত্ব পাওয়াদের মধ্যে রহমত শাহকে টেস্ট, গুলবাদিন নায়েবকে একদিন এবং রশিদকে টি ২০ দলের অধিনায়ক হিসেবে ঘোষণা করেছে বোর্ড।

দল ঘোষণার পর গুলবাদিন নায়েব সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে লিখেন, ‘দলের একজন সিনিয়র সদস্য হিসেবে এবং আফগানিস্তানের ক্রিকেটের উত্থানের একজন সাক্ষী হিসেবে আমি মনে করি না যে বিশ্বকাপের আগে অধিনায়ক পরিবর্তন করাটা সঠিক হয়েছে। আসগর আফগানের নেতৃত্বে দল ভালোই খেলছিল। আমি ব্যক্তিগতভাবে অনুভব করি আমাদের নেতৃত্বদানের ক্ষেত্রে তিনি সঠিক ব্যক্তি।’

নবীর টুইটের নিচে দুইবার রিটুইট করেন রশিদ খান। প্রথমে তিনি লিখেন, ‘নির্বাচক কমিটির উপর পূর্ণ শ্রদ্ধা রেখেই এমন অবিবেচক ও পক্ষপাতদুষ্ট সিদ্ধান্তের সঙ্গে আমি একমত হতে পারছি না। যেহেতু আমাদের সামনে বিশ্বকাপ, সেহেতু আমি মনে করি আসগর আফগানকেই অধিনায়ক হিসেবে রাখা উচিত। তার অধিনায়কত্ব দলের সাফল্যের জন্য খুবই সহায়ক।’

এরপর তিনি আবার লিখেন, ‘বিশ্বকাপের মতো একটি মেগা ইভেন্ট শুরুর ঠিক একমাস আগে এমন পরিবর্তন দলের মধ্যে অনিশ্চয়তা তৈরি করবে এবং দলগত মনোবলে চিড় ধরাবে।’

মন্তব্য: