বিশ্বকাপে প্রথমবারের মত খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন পাকিস্তানের লেগ স্পিনার শাদাব খান। তবে এবার বিশ্বকাপে খেলা অনিশ্চিতয়তার মধ্যে পড়ে গেল তার। হেপাটাইটিস ‘সি’-তে আক্রান্ত হয়েছেন তিনি।

পাকিস্তানের ১৫ সদস্যের এই বিশ্বকাপ দলে জায়গা করে নিয়েছেন তরুণ অলরাউন্ডার শাদাব খান। তবে বিশ্বকাপের আগে তাকে ছাড়াই ইংল্যান্ড সফরে গেছে পাকিস্তান দল। তাই প্রশ্ন ওঠে কেন তাকে ছাড়াই ইংল্যান্ড যাচ্ছে সরফরাজরা। সে সময় পিসিবির তরফ থেকে জানানো হয়েছিল তিনি ভাইরাস সংক্রমণে আক্রান্ত। তবে এখন জানা গেলো তার আসল কারণ।

পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, শাদাবের শরীরে হেপাটাইটিস ‘সি’ ভাইরাস পাওয়া গেছে। পিসিবি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘বিশ্বখ্যাত অন্ত্রবিদ ও হেপাটোলজিস্ট ডক্টর প্যাট্রিক কেনেডির সঙ্গে দেখা করেছে শাদাব। ডক্টর কেনেডি বিশ্বখ্যাত অ্যাথলেটদের যকৃতের রোগের নিরাময়ের জন্য বিখ্যাত। শাদাবকে চিকিৎসা ও বিশ্রামের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।’

পিসিবির মুখপাত্র বলেছেন দুই সপ্তাহ বিশ্রামের পর আরেকবার রক্ত পরীক্ষা করা হবে শাদাবের। তখনই বোঝা যাবে, বিশ্বকাপের জন্য এই লেগ স্পিনারকে পাবে কি না পাকিস্তান। ২৩ মে পর্যন্ত বিশ্বকাপের দলে পরিবর্তন আনা যাবে। ৩৪ ওয়ানডেতে ৪৭ উইকেট নেওয়া শাদাবই পাকিস্তানের ১৫ সদস্যের বিশ্বকাপ দলের একমাত্র লেগ স্পিনার।

কিছুদিন আগে দাঁতের চিকিৎসা করাতে গিয়েছিলেন শাদাব খান। ধারণা করা হচ্ছে, সেখান থেকেই নতুন এই রোগটা বাঁধিয়ে এসেছেন তিনি। দাঁতের চিকিৎসা নিতে রাওয়ালপিন্ডিতে এক ডেন্টিস্টের কাছে যাওয়ার পর সেখানে তার চেকআপ করা হয়। কিন্তু দাঁত পরীক্ষার সময় সেখানকার একটি টুলস থেকে এই ভাইরাসের সংক্রমণ হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মন্তব্য: