ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই ক্রিকেটারদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় চুক্তির নতুন তালিকা প্রকাশ করল। নতুন তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন সিনিয়র ওপেনার শিখর ধাওয়ান ও পেসার ভুবনেশ্বর কুমার। অন্যদিকে, তরুণ উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্ত তাঁর পারফরম্যান্সে উন্নতির পুরস্কার হিসেবে প্রবেশ করলেন ‘এ’ বিভাগে।

বৃহস্পতিবার রাতে বিসিসিআই বার্ষিক চুক্তি প্রকাশ করেছে। সেই তালিকায় থাকা ‘এ প্লাস’ ক্যাটাগরির খেলোয়াড়রা বার্ষিক সাত কোটি টাকা বেতন পারেন। এই বিভাগে জায়গা পাওয়া ক্রিকেটারদের মধ্যে রয়েছেন ভারতীয় দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি, একদিনের দলের সহ অধিনায়ক রোহিত শর্মা এবং জসপ্রিত বুমরাহ।

অন্যদিকে, টেস্ট ক্রিকেটে ভালো পারফরম্যান্সে ভর করে ঋষভ সরাসরি ‘এ’ বিভাগে উঠে এসেছেন। এক্ষেত্রে বার্ষিক পাঁচ কোটি টাকার চুক্তির আওতায় এসেছেন ঋষভ। সাম্প্রতিক সময়ে দুর্দান্ত ফর্মে থাকার পুরস্কার হিসেবে তার এই উন্নতি। পন্তের পাশাপাশি বি গ্রেড থেকে ‘এ’ গ্রেডে উন্নতি করলেন মোহাম্মদ শামি, কুলদীপ যাদব ও ইশান্ত শর্মা৷

‘এ’ বিভাগে অন্য যাঁরা রয়েছেন, তাঁরা হলেন, ধোনি, ধাওয়ান, ভুবনেশ্বর, মোহম্মদ সামি, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, রবীন্দ্র জাদেজা, কুলদীপ যাদব, চেতেশ্বর পূজারা, আজিঙ্কা রাহানে।

গত বছর ‘এ’ বিভাগে থাকা মুরলী বিজয় অস্ট্রেলিয়া সফরে সফল হননি। কেন্দ্রীয় চুক্তিতে এবার তিনি রয়েছেন ‘বি’ বিভাগে। এছাড়া অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডে, কে এল রাহুল ‘বি’ বিভাগেই রয়েছেন। এই বিভাগে বার্ষিক চুক্তি তিন কোটি টাকার। এই বিভাগে রয়েছেন যুজবেন্দ্র চাহাল ও উমেশ যাদবও।

‘সি’ বিভাগের খেলোয়াড়দের বার্ষিক চুক্তি ১ কোটি টাকার। এই বিভাগে রয়েছেন দিনেশ কার্তিক, অম্বাতি রায়ডু, মণীষ পান্ডে, হনুমা বিহারী, খলিল আহমেদ, কেদার যাদব এবং ঋদ্ধিমান সাহা।

২০১৮-র জানুয়ারিতে ভারতের হয়ে শেষবার খেলেছিলেন ঋদ্ধি। কাঁধে অস্ত্রোপচার হওয়ায় সারা বছরই ক্রিকেটের বাইরে ছিলেন তিনি। আট মাস পরে মাঠে ফিরলেও তাকে এ বার ‘এ’ বিভাগে রাখা হয়নি।

মন্তব্য: