চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালের প্রথম লেগে লিভারপুলকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে ফাইনালে এক পা দিয়ে রাখল বার্সেলোনা। এই ম্যাচে মেসির জোড়া গোল করে ৬০০ গোলের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন। ম্যাচের অন্য গোলটি করেছেন সুয়ারেজ।

আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে ঠাসা উত্তেজনাকর এক ম্যাচে ম্যাচের প্রথমার্ধেই লিড নেয় বার্সেলেনা। ম্যাচের ২৬ মিনিটের মাথায় জোর্ডি আলবার পাস থেকে লিভারপুলের জালে প্রথমবার বল জড়ান সুয়ারেজ ৷

এটিও বার্সার একটি মাইলস্টোন গোল৷ চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এটি তাদের ৫০০তম গোল৷ রিয়াল মাদ্রিদের পর দ্বিতীয় ক্লাব হিসাবে প্রাইম ইউরোপীয়ান টুর্নামেন্টে এমন কৃতিত্ব অর্জন করে বার্সা৷

বিরতি থেকে ফিরে গোল পরিশোধে মরিয়া হয়ে ওঠে লিভারপুল। প্রথম ১৫ মিনিটেই অন্তত তিনটি দুর্দান্ত আক্রমণ তৈরি করে অতিথিরা। কিন্তু জাল খুঁজে নিতে পারেনি। উল্টো ব্যবধান দ্বিগুণ করে স্বাগতিকরা।

৭৫ মিনিটে সুয়ারেজের শট পোস্টে প্রতিহত হলে ফিরতি বল প্রিমিয়র লিগ জায়ান্টদের জালে ঠেলে দেন মেসি৷ বার্সেলোনা এগিয়ে যায় ২-০ গোলে৷

ম্যাচের ৮২ মিনিটে অসাধারণ এক ফ্রি-কিকে স্কোর লাইন ৩-০ করেন মেসি। ঝাঁপিয়েও তার নিখুঁত শট ঠেকাতে পারেননি লিভারপুল গোলরক্ষক আলিসন।

বার্সার হয়ে সবরকম টুর্নামেন্ট মিলিয়ে এটি মেসির ৬০০তম গোল৷ ২০০৫ সালে, ১৪ বছর আগে এইদিনে বার্সার হয়ে গোলের খাতা খুলেছিলেন আর্জেন্টাইন ফুটবল জাদুকর লিওনেল মেসি। জোড়া গোলের রাতে ছুঁয়ে ফেললেন ৬০০ গোলের অনন্য মাইলফলক।

৩-০ গোলের জয়ের সুবাদে সেমিফাইনালের প্রথম লেগে জিতে চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনালে এক পা দিয়ে রাখল কাতালান ক্লাবটি। মঙ্গলবার অ্যানফিল্ডে ফিরতি লেগে লড়বে বার্সা ও লিভারপুল।

মন্তব্য: