গতকাল বাংলাদেশে পা রেখেছেন জাতীয় দলের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। রাত পেরোনোর পরই আজ চলে আসেন মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে। সেখানে ক্রিকেটারদের সঙ্গে সাক্ষাৎপর্ব সারেন। এরপর সাংবাদিকদের সঙ্গে নিজের পরিকল্পনা জানান।

সংবাদ সম্মেলনের শুরুতেই বাংলাদেশের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো বলেন, ‘আমি শুরুতেই চারটি লক্ষ্য নিয়ে কাজ করব। খেলোয়াড়দের ভালো ভাবে দেখা, তাদের সম্পর্কে ভালো ধারণা নেয়া, সবার সাথে ভালো সম্পর্ক তৈরি করা ও তাদের আস্থা অর্জন করা। দেখি খেলোয়াড়রা তাদের কাজটা কীভাবে করে। আগামী কয়েকদিন আসলে একটা পর্যবেক্ষকের ভূমিকায় থাকব, দেখব কে কি করে, শিখতে চাইব ব্যাপারগুলো।’

দক্ষিণ আফ্রিকা দলের হেড কোচ হিসেবে লম্বা সময় ধরে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে ডমিঙ্গোর। বাংলাদেশ দলের কোচ হওয়ার আগে তিনি আফ্রিকা ‘এ’ দলের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

বড় দল আফ্রিকার সঙ্গে কাজ করার সময়ই প্রত্যাশার চাপ সামাল দিয়েছেন তিনি। সেই চাপই আবারো আঁচ করতে পারছেন বাংলাদেশেও। তবে এই চাপ উপভোগ করবেন বলে জানিয়েছেন ডমিঙ্গো।

তিনি বলেন, ‘আমি পাঁচ বছর দক্ষিণ আফ্রিকার কোচ হিসেবে কাজ করেছি। ওখানেও বিপুল প্রত্যাশা ছিল। বাংলাদেশেও তাই। আমি রোমাঞ্চিত। আসলে প্রত্যাশার চাপ নিতে আমি অভ্যস্ত। যদিও গত দুই বছর ধরে ওদের মূল দলের সঙ্গে ছিলাম না। “এ” দল নিয়ে কাজ করছিলাম। আমি ক্রিকেট নিয়ে কাজ করতে, নির্বাচন, কৌশল বাছাই করতে মুখিয়ে আছি। কোচ হিসেবে চাপকে জয় করেই আমরা এগিয়ে যাই। উপভোগ করি প্রত্যাশার চাপ। সব ম্যাচে জয় পেলে সেটা আপনার কাছে বিরক্তিকর মনে হবে।’

মন্তব্য: