স্পট-ফিক্সিংয়ের জন্য ক্রিকেট থেকে আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিল ভারতীয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ী সদস্য শান্তাকুমারন শ্রীশান্ত৷ তবে সেই নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ সাত বছরে নামিয়ে আনায় আবারো ক্রিকেটে ফিরতে চলেছেন এই ডান হাতি পেসার।

২০১৩ সালে আইপিএলে রাজস্থানের হয়ে খেলার সময় স্পট ফিক্সিংয়ের দায়ে অভিযুক্ত হলে বিসিসিআই তাকে আজীবনের জন্য নিষেধাজ্ঞা দেয়। এরপর নানান দেনদরবার করেও নিজের শাস্তি কমাতে না পারলে তিনি আদালতে নিজেকে নির্দোষ প্রমান করেন। কিন্তু তা সত্ত্বেও বিসিসিআই নিজেদের সিদ্ধান্তে অনড় ছিলো।

তবে নিষেধাজ্ঞা ছয় বছর পেরোনোর পর মন গললো বিসিসিআইয়ের। আজীবনের নিষেধাজ্ঞা কমিয়ে নামানো হয়েছে সাত বছরে। বিসিসিআই-এর অমবাডসম্যান ডিকে জৈন এর কমিটি এই সিন্ধান্ত নেন।

তিনি বলেন, ‘শ্রীশান্তের জন্য সাত বছর যে কোনও ধরনের ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত থাকা এবং বিসিসিআই-এর কোনও কাজকর্মে যুক্ত না-থাকা যথেষ্ট ৷ বোর্ডের শৃঙ্খলারক্ষা কমিটির নির্দেশে যেটা শুরু হয়েছিল ১৩ আগস্ট, ২০১৩৷ এবার তা বিচার পেল৷’

ফলে ২০১৩ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে শাস্তি শুরু হওয়ার কারণেই সাত বছর পর ২০২০ সালের একই তারিখে শেষ হবে শাস্তির মেয়াদ। এদিকে বিসিআইয়ের এই সিদ্ধান্তে স্বস্তির নিশ্বাস নিচ্ছেন শ্রীশান্ত। ৩১ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার এক সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর আর পাঁচ বছর তিনি ক্রিকেট খেলতে চান তিনি।

মন্তব্য: