ভারতের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শেষ হওয়ার পরেই আমীরশাহীতে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সিরিজ খেলবে অস্ট্রেলিয়া। এক বছরের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হওয়া সত্বেও এই সিরিজের দলে জায়গা হলো না স্মিথ ও ওয়ার্নারের।

পাকিস্তানের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজকে সামনে রেখে শুক্রবার ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। গুঞ্জন ছিল পাকিস্তানের বিপক্ষে ২২ মার্চ থেকে শুরু হতে যাওয়া ওয়ানডে সিরিজ দিয়ে আবারও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরবেন স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার। কিন্তু কার্যত সেটা হলো না।

বল বিকৃতিকাণ্ডে নির্বাসনের মেয়াদ শেষ হচ্ছিল আগামী ২৮ মার্চ। তাই পুরো সিরিজ খেলতে না পারলেও ২৯ ও ৩১ মার্চ চতুর্থ ও পঞ্চম একদিনের ম্যাচে খেলার সুযোগ ছিল স্মিথ ও ওয়ার্নারের। কিন্তু নির্বাচকরা ভারতের বিরুদ্ধে চলতি সিরিজে খেলা ১৫ জনকেই দলে রাখার সিদ্ধান্ত নিলেন।

এ বিষয়ে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া নির্বাচক ট্রেভর হর্নস বলেছেন, কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্কারের সঙ্গে আলোচনা করে স্থির হয়েছে যে, ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে খেলার মাধ্যমেই দলে প্রত্যাবর্তনের পথ প্রশস্ত করতে পারবেন ওই দুই ক্রিকেটার। ওদের কনুইয়ের চোটের চিকিৎসার পর এখন ওরা রিহ্যাবে রয়েছে। আইপিএলের মাধ্যমেই ওদের খেলায় ফেরার ভালো সুযোগ রয়েছে।

এদিকে স্মিথ আইপিএল খেলবেন রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে। অন্যদিকে ওয়ার্নারের দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। আইপিএল শুরু হচ্ছে ২৩ মার্চ। আর বিশ্বকাপের জন্য অস্ট্রেলিয়ার দল ঘোষণা হবে ২৩ এপ্রিল।

চোটের জন্য মিচেল স্টার্ককেও সুযোগ দেওয়া হয়নি। ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজেও স্টার্ক নেই। তবে নির্বাচক হর্নসের আশা বিশ্বকাপের আগে সুস্থ হয়ে উঠবেন স্টার্ক। অবশ্য কেন রিচার্ডসনকে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে দলে রাখা হয়েছে।

মন্তব্য: